ঢাকা     শনিবার   ২২ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৮ ১৪৩১

বিয়ের দাওয়াত না দেওয়ায় মারামারি, নারী নিহত

পটুয়াখালী (উপকূল) প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৩৫, ১১ জুন ২০২৪   আপডেট: ১৮:৪৭, ১১ জুন ২০২৪
বিয়ের দাওয়াত না দেওয়ায় মারামারি, নারী নিহত

পটুয়াখালীর সদর উপজেলায় বিয়ের দাওয়াত না দেওয়াকে কেন্দ্র করে দুই পরিবারের মারামারিতে নীলিমা শিকারী (৪৫) নামে এক নারী নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার (১১ জুন) সকালে উপজেলার মধ্য ভরান্ডী গ্রামে মারামারি হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এক সপ্তাহ আগে ভরান্ডী গ্রামের নীলিমার ছেলে সুমিত শিকারীর শালী দোলার বিয়ে হয়। বিয়েতে পাশের রায় পরিবারকে দাওয়াত না দেওয়ায় তাদের মধ্যে ক্ষোভ ছিল। এ ঘটনা নিয়ে সকাল ৮টার দিকে ৫ থেকে ৬ লোক নিয়ে নীলিমার স্বামী সুনীল শিকারীকে খুঁজতে আসে রণজিত রায়। পরে উভয় পরিবারের লোকজন বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে মারামারিতে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় নীলিমা মারামারি থামাতে গিয়ে আহত হয়। তাকে উদ্ধার করে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে বিকালে মৃত্যু হয়।

মৃত নীলিমার ছেলে সুমিত শিকারী বলেন, ‘৭/৮ দিন আগে আমার শালী দোলার বিয়ে হয়। অনুষ্ঠানে দাওয়াত না দেওয়ায় আমার বাবার সঙ্গে রায় পরিবারের রণজিতের উচ্চবাচ্য হয়। এক পর্যায়ে রণজিত রায় আমার শালীকে নিয়ে কটূক্তি করেন। এ ঘটনাকে ভিন্নভাবে প্রভাবিত করতে তখন থেকে রায় পরিবারের লোকজন উত্তেজনা ছড়ানোর চেষ্টা করে আসছে। আজ সকালে কিছু বুঝে উঠার আগে রণজিত, জয়দেবসহ ১০-১২ জন আমাদের পরিবারের উপর আক্রমণ চালায়। এ সময় আমার মা আহত হলে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। বিকালে তার মৃত্যু হয়।’ 

রণজিত ও জয়দেবের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

পটুয়াখালী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জসিম জানান, এ ঘটনায় নিহত পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করা হয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ইমরান/বকুল 

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়