ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৫ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ১২ ১৪৩১

সশরীরে এজিএম-ইজিএমে থাকতে চান বিনিয়োগকারীরা

নুরুজ্জামান তানিম || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৫৭, ১০ জানুয়ারি ২০২৩  
সশরীরে এজিএম-ইজিএমে থাকতে চান বিনিয়োগকারীরা

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) ও বিশেষ সাধারণ সভায় (ইজিএম) সশরীরে উপস্থিত থাকতে চান বিনিয়োগকারীরা। তাই, এজিএম ও ইজিএমে সশরীরে উপস্থিতির সুযোগের জন্য পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনে (বিএসইসি) আবেদন জানিয়েছেন বিনিয়োগকারীরা।

সম্প্রতি এ সংক্রান্ত একটি আবেদন বিনিয়োগকারীদের পক্ষ থেকে বিএসইসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়য়াত-উল-ইসলামের কাছে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে ২০২০ সালের ৮ জুলাই নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি তালিকাভুক্ত কোম্পানির এজিএম ও ইজিএমসহ যেকোনো ধরনের সভা অনলাইন প্ল্যাটফর্মে করার নির্দেশ দিয়েছিল। সেই নির্দেশনার আলোকে এখন পর্যন্ত কোম্পানিগুলো তাদের এজিএম ও ইজিএম অনালাইনে আয়োজন করছে। তবে, বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কথা বিবেচনা করে কোম্পানিগুলোর এজিএম ও ইজিএম সশরীরে আয়োজন করার জন্য বিএসইসির কাছে আবেদন জানানো হয়েছে।

বিনিয়োগকারীদের আবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, করোনা সংক্রমণ রোধে বিএসইসি ২০২০ সালের ৮ জুলাই এজিম ও ইজিএম সভাসহ যেকোনো ধরনের বৈঠক অনলাইন প্ল্যাটফর্মে আয়োজনের পরামর্শ দিয়েছিল। বর্তমানে করোনা মহামারি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে আছে। ফলে, সরকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ সকল অফিস-আদালত স্বাভাবিক নিয়মে চালু রাখার নির্দেশনা দিয়েছে। হাট-বাজার, রাস্তা-ঘাট, এমনকি রাজনৈতিক দলের মিছিল মিটিংও আগের মতো স্বাভাবিকভাবে চলছে।

আবেদনে আরও উল্লেখ করা হয়, অনলাইন প্ল্যাটফর্মে আয়োজিত মিটিংয়ে অংশগ্রহণকারী অনেকেরই মনসংযোগ থাকে না। আবার অনেকে একসাথে একাধিক মিটিংয়ে অংশগ্রহণ করে। অনেকে বাসায় বসে জুম অন করে পরিবারের অন্য কাজে ব্যস্ত থাকেন। এসব মিটিংয়ের ব্যয় ঠিকই আগের মতো করা হয়। কিন্তু, এই মিটিংয়ে কোম্পানির বিন্দুমাত্র লাভ হয় না। তাই, সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কথা বিবেচনা করে কোম্পানিগুলোর পরিচালনা পর্ষদ সভা, বার্ষিক সাধারণ সভাসহ সব ধরনের সভা অনলাইন প্ল্যাটফর্মের পরিবর্তে সশরীরে আয়োজনের নির্দেশনা দেওয়ার জন্য আবেদন জানানো হলো।

এর আগে ২০২০ সালে করোনা পরিস্থিতিতে সরকারের নির্দেশনার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে শেয়ারবাজারের কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়ে গুরুত্ব দিয়ে অনলাইনে সভা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কমিশন। বিএসইসির নির্দেশনায় উল্লেখ করা হয়, দেশব্যাপী করোনভাইরাসের প্রভাব বাড়ছে। এ পরিস্থিতিতে সভা-সমাবেশ করায় করোনা সংক্রামণের ঝুঁকি আছে। তাই, স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর এজিএম, ইজিএম ও পরিচালনা পর্ষদ সভা ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম আয়োজন করার নির্দেশনা দেওয়া হলো। বৈঠককালে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যসুরক্ষা যথাযথ নিশ্চিত করতে হবে। এছাড়া, বিভিন্ন সময়ে কমিশনের আদেশের প্রাসঙ্গিক শর্তাবলী মেনে শেয়ারহোল্ডারদের ভোটাধিকার এবং অন্যান্য অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। সে সময় সারা দেশে করোনাভাইরাস সংক্রামণকালে নতুন কমিশন দায়িত্ব নেওয়ার পর আইন করে অনলাইনে সভা-সেমিনার করার নির্দেশনা জারি করে। করোনা পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হওয়ার, সে আইন পরিবর্তন করে হাইব্রিড সিস্টেম চালু করে কমিশন।

এনটি/রফিক

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়