Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২১ ||  অগ্রহায়ণ ১৭ ১৪২৮ ||  ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩

ডেঙ্গু রোগী প্লাটিলেট বাড়াতে যা খাবেন

এস এম ইকবাল || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:৪৬, ২৮ অক্টোবর ২০২১   আপডেট: ১৭:৩৪, ২৮ অক্টোবর ২০২১
ডেঙ্গু রোগী প্লাটিলেট বাড়াতে যা খাবেন

ডেঙ্গু সংক্রমণের অন্যতম জটিলতা হলো রক্তের প্লাটিলেট কমে যাওয়া। প্লাটিলেট কমতে কমতে বিপজ্জনক পর্যায়ে চলে যেতে পারে। চিকিৎসকদের মতে, প্লাটিলেট ২০,০০০ এর নিচে নেমে গেলে শরীরের অভ্যন্তরে রক্তক্ষরণের ঝুঁকি আছে। এমনকি মৃত্যও হতে পারে।

তাই ডেঙ্গু শনাক্ত হলে খাদ্যতালিকায় এমনকিছু খাবার অন্তর্ভুক্ত করা উচিত, যা প্লাটিলেটের সংখ্যাকে নিরাপদ পর্যায়ে রাখতে সাহায্য করবে। এখানে প্লাটিলেটের সংখ্যা দ্রুত বাড়াতে পারে এমনকিছু খাবারের তালিকা দেয়া হলো।

পেঁপে পাতা: পেঁপে পাতাতে অ্যাসিটোজেনিন নামে একটি অনন্য ফাইটোকেমিক্যাল থাকে, যা ডেঙ্গু রোগীদের জন্য কার্যকর প্রতিকারক হতে পারে। এটি প্লাটিলেটের সংখ্যা দ্রুত বাড়াতে সাহায্য করে। পেঁপে পাতাতে ফ্লেভানয়েড ও ক্যারোটিনও থাকে, যা অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের পাশাপাশি অ্যান্টি-ইনফ্লামেটরি (প্রদাহনাশক) হিসেবেও কাজ করে। ঘরে সহজেই পেঁপে পাতার জুস বানাতে পারেন। ৪/৫টা পেঁপে পাতাকে পানিতে ফুটিয়ে সকালে ও সন্ধ্যায় এক কাপ করে পান করুন।

কিসমিস: ডেঙ্গু সংক্রমণে প্লাটিলেটের সংখ্যা কমে গেলে কিসমিস খেয়ে বিপদ এড়াতে পারেন। কিসমিসে প্রচুর আয়রন রয়েছে। গবেষণা মতে, আয়রন সমৃদ্ধ খাবার খেলে প্লাটিলেটের সংখ্যা বাড়ে। এক মুঠো কিসমিসকে সারারাত পানিতে ভিজিয়ে রাখুন, তারপর সকালে পানিসহ কিসমিসগুলো খেয়ে ফেলুন। এটা অ্যানিমিক রোগীদের জন্যও খুবই কার্যকর, যাদের হিমোগ্লোবিন কমে যায়।

কমলা: কমলাতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি আছে।ভিটামিন সি শরীরে প্লাটিলেটের উৎপাদন বাড়াতে সাহায্য করে।ভিটামিন সি সমৃদ্ধ অন্যান্য খাবারও ডেঙ্গু রোগীর জন্য সহায়ক হতে পারে, যেমন- লেবু, আমলকি, কাঁচামরিচ ও ক্যাপসিকাম।

কলা: কলা হলো পটাশিয়াম সমৃদ্ধ খাবার, যা ডেঙ্গু রোগীদের জন্য সুপারিশ করা যেতে পারে। গবেষণায় পটাশিয়াম সমৃদ্ধ খাবার প্লাটিলেটের সংখ্যা বাড়াতে দেখা গেছে। অধিক কার্যকর ফল পেতে পটাশিয়ামের পাশাপাশি ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার খেতে পারেন।

মেথির পানি: প্লাটিলেটের সংখ্যা কমতে থাকলে মেথির পানি পান করতে পারেন।এক গ্লাস পানিতে এক চা চামচ মেথি বীজ সারারাত ভিজিয়ে রাখুন। তারপর ওই পানি সকালে হালকা গরম করে পান করুন। মেথির বীজকে সারারাত ভিজিয়ে রাখতে হবে এমনকোনো কথা নেই, দিনেও ৩/৪ ঘণ্টা ভিজানোর পর মেথির পানি পান করা যাবে।

পালংশাক: ডেঙ্গু রোগীদের জন্য ভিটামিন কে সমৃদ্ধ খাবার উচ্চ সুপারিশকৃত। প্লাটিলেটের সংখ্যা বাড়াতে ভিটামিন কে আসলেই কার্যকর। এটি শরীরের অভ্যন্তরে রক্তক্ষরণের ঝুঁকি কমাতে পারে, অর্থাৎ রক্ত জমাটের ক্ষমতা রয়েছে। পালংশাক এই পুষ্টিতে ভরপুর। ভিটামিন কে’র অন্যান্য উৎস খেলেও উপকার পাবেন, যেমন- ব্রোকলি ও বাঁধাকপি। এসব শাকসবজির ফোলেটও প্লাটিলেট বাড়াতে অবদান রাখতে পারে।

বিটরুট: লাল রঙের এই সবজি প্লাটিলেটের ফ্রি রেডিক্যাল জনিত ক্ষতি প্রতিরোধ করতে পারে, যার ফলে প্লাটিলেটের সংখ্যা কমে বিপজ্জনক পর্যায়ে যায় না। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হলে প্লাটিলেটের সংখ্যা দ্রুত বাড়াতে প্রতিদিন বিটরুটের জুস পান করতে পারেন। সালাদ ও স্যূপেও বিটরুট খেতে পারেন।

ডালিম: ডেঙ্গু রোগীর খাদ্যতালিকায় অবশ্যই ডালিম রাখতে হবে। এটি প্লাটিলেটের সংখ্যাকে আর কমতে দেয় না এবং যা কমেছে তা দ্রুত পূরণ করে। তাই ডেঙ্গু শনাক্ত হলেই প্রতিদিন ডালিম খাওয়া উচিত, যার ফলে প্লাটিলেটের কমে যাওয়া এড়ানো সম্ভব হবে। ডালিমে প্রচুর পরিমাণে আয়রন রয়েছে। এছাড়া এতে রোগ নিরাময়ের অন্যান্য উপাদানও আছে।

তথ্যসূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

ঢাকা/ফিরোজ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়