ঢাকা     বুধবার   ২৯ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪৩১

ঘাম কমাতে চাইলে এই বিষয়গুলো খেয়াল রাখুন

দেহঘড়ি ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:১৪, ২৩ এপ্রিল ২০২৪   আপডেট: ১৫:১৯, ২৩ এপ্রিল ২০২৪
ঘাম কমাতে চাইলে এই বিষয়গুলো খেয়াল রাখুন

ছবি: প্রতীকী

অতিরিক্ত ঘাম হওয়া স্বাস্থের জন্য ভালো নয়। এতে শরীরে সহজেই পানিশূন্যতা তৈরি হয়। অতিরিক্ত ঘামের সমস্যা দূর করতে হলে কয়েকটি বিষয়ে খেয়াল রাখা জরুরি।

ভালো গোসল: একটু বেশি সময় নিয়ে ধীরে-স্থিরে গোসল করুন। ক্লান্তি দূর করার জন্য গোসলের সময় সফট মিউজিক শুনতে পারেন। তীব্র বৈদ্যুতিক আলোতে গোসল না করে সুগন্ধিযুক্ত মোমবাতির আলোয় গোসল করতে পারেন। গোসলের পর প্রাকৃতিক বাতাসে শরীর শুকিয়ে নিন। তারপরে  সুতি বা লিনেন ঢিলেঢালা পোশাক পরুন। অবশ্যই হালকা রঙের পোশাক পরুন।

রিল্যাক্সে গোসল করুনতরল পান করুন: অতিরিক্ত তাপের কারণে শরীরে ঘাম বেশি হয়। এতে শরীরে পানিশূন্যতা তৈরি হতে পারে। পুষ্টিবিদরা বেশি বেশি পানি পান করার পরামর্শ দেন। এ ছাড়া বিভিন্ন রকম পানীয় পান করতে পারেন। যেমন-  গ্রীষ্মকালীন ফলের জুস, বাটারমিল্ক, জিরাপানি ইত্যাদি।

কফি কম পান করুন: ঘুম থেকে জেগেই কফি পান করার অভ্যাস আছে? তাহলে এই অভ্যাস ছাড়তে হবে। কারণ, কফিতে থাকা ক্যাফেইন অ্যাড্রিনাল গ্রন্থিগুলোকে উদ্দীপিত করে। এর ফলে হাতের তালু, পা এবং আন্ডারআর্মগুলো ঘামতে শুরু করে।

অতিরিক্ত মশলাদার খাবার বাদ দিন: ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার বেশি পরিমাণে খেতে হবে। তবে তরকারিতে অতিরিক্ত মশলা যুক্ত করতে যাবেন না। অতিরিক্ত মশলাদার খাবার অতিরিক্ত ঘামের কারণ হতে পারে। দুগ্ধজাতীয় খাবার গ্রহণ করুন।

অ্যান্টিপারসপিরেন্ট ব্যবহার করুন: অ্যান্টিপারস্পাইরেন্টগুলো বিশেষভাবে ঘাম কমানোর জন্য তৈরি করা হয়। ঘামের সমস্যা দূর করতে অ্যান্টিপারসপিরেন্টের ব্যবহার করুন। এটি ঘাম উৎপাদনকারী গ্রন্থিগুলোকে  আটকে দেয়। অর্থাৎ ঘাম কমাতে সাহায্য করে এটি। 

শান্ত থাকুন: মেজাজ খারাপ করলে ঘাম বেশি হতে পারে। রিল্যাক্স থাকার চেষ্টা করুন। মন ঠান্ডা থাকলে ঘাম কম হবে। এজন্য নিয়মিত প্রার্থনা বা মেডিটেশন করুন।

প্রসাধনী ব্যবহারে সতর্কতা: অ্যালুমিনিয়াম ক্লোরাইডযুক্ত প্রসাধনী ব্যবহার করুন। এগুলো ঘাম হওয়া কমাতে সাহায্য করে। 

বাহুমূল পরিষ্কার রাখুন: ব্যাকটেরিয়া এবং দুর্গন্ধ দূর করতে প্রতিদিন সাবান দিয়ে বাহুমূল ধুয়ে নিন। শরীরের অবাঞ্চিত লোম পরিষ্কার রাখুন।

এসব নিয়ম মানার পরেও যদি ঘাম না কমে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।  

তথ্যসূত্র: এনডিটিভি এবং হেলথটুলস অবলম্বণে

/লিপি

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়