ঢাকা     বুধবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||  আশ্বিন ১৩ ১৪২৯ ||  ০১ রবিউল আউয়াল ১৪১৪

অপসাংবাদিকতার বিরুদ্ধে গ্রামবাসীর মানববন্ধন

সাভার (ঢাকা) প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৫৯, ১২ আগস্ট ২০২২  
অপসাংবাদিকতার বিরুদ্ধে গ্রামবাসীর মানববন্ধন

ঢাকার সাভারে অপসাংবাদিকতার মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে ব্ল্যাকমেইল, ফেসবুকে অপপ্রচার ও হয়রানিসহ নানা অভিযোগ তুলে রেহাই পেতে একটি গ্রামের প্রায় হাজারো মানুষ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন।

শুক্রবার (১২ আগস্ট) বিকেলে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের নবীনগর জাতীয় স্মৃতিসৌধের সামনে এই কর্মসূচিতে অংশ নেয় পাথালিয়া ইউনিয়নবাসী। এ সময় মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য, আওয়ামী লীগ নেতাসহ সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন। এর আগে, সড়কে বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেন তারা।

মানববন্ধনে আশুলিয়া থানা কৃষক লীগের সহ-সভাপতি হাজী আব্দুল লতিফ বলেন, ‘সম্প্রতি সাংবাদিকতার নামে কিছু ব্যক্তি নিজেদের অসৎ উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য নানাভাবে মানুষকে হয়রানি করছে। সোশ্যাল মাধ্যমে টার্গেট করা ব্যক্তিদের নামে প্রোপাগান্ডা ছড়িয়ে অর্থ দাবি করছে। তাদের অত্যাচারে সাধারণ মানুষ অতিষ্ঠ হলেও ভয়ে মুখ খুলতে চায় না কেউই। আমাদের গ্রামসহ সাভারের  অনেক এলাকার মানুষ এই অপসাংবাদিকদের ব্ল্যাকমেইলের শিকার। আমরা এদের কাছ থেকে পরিত্রাণ পেতে সরকার ও প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।’

পাথালিয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হোসেন বলেন, ‘মহান সাংবাদিকতা পেশাকে আমরা শ্রদ্ধা করি। এই সুযোগ নিয়ে কিছু অসৎ লোক মহান এই পেশাকে কলুষিত করছে। সম্প্রতি দুইজন নামধারী সাংবাদিক আমাদের ওয়ার্ডের মেম্বার সফিউল আলম সোহাগকে নিয়ে ফেসবুকে নানা অপপ্রচার চালিয়েছে। ষড়যন্ত্র করে তার বিরুদ্ধে মাদক কারবারি এক পরিবারের মাধ্যমে থানায় মামলা দায়ের করিয়েছে। বর্তমানে কারাভোগকারী সেই জনপ্রতিনিধির বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও নিঃশর্ত মুক্তি চাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিশেষ করে জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিবিদ ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরাই এসব অপসাংবাদিকদের টার্গেটের শিকার হয়ে হয়রানি হচ্ছেন। আমরা তাদের বিচার চাই।’

আশুলিয়া থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এস এ শামীম বলেন, ‘আমার ভাই সোহাগের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দায়ের করেছে মাদক কারবারে জড়িত একটি পরিবার। ওই পরিবারের পাঁচজনের মধ্যে তিনজনের বিরুদ্ধে প্রায় দেড় ডজন মাদক মামলা রয়েছে। আর তাদের প্রতিনিধিত্ব করছেন দুজন নামধারী সাংবাদিক। যারা বরাবরই মানুষকে ব্ল্যাকমেইল করে অর্থ হাতিয়ে নেয়। আমি প্রশাসনের কাছে ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত দাবি করছি।’

সাব্বির/কেআই

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়