ঢাকা     মঙ্গলবার   ২১ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ৭ ১৪৩১

‘প্রতীক বরাদ্দের আগে প্রার্থীরা ডিজিটালভাবে প্রচার চালাতে পারবেন’

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:৫৯, ১৮ এপ্রিল ২০২৪  
‘প্রতীক বরাদ্দের আগে প্রার্থীরা ডিজিটালভাবে প্রচার চালাতে পারবেন’

বক্তব্য রাখছেন নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর

নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর বলেছেন, ‘ডিজিটাল যুগে আমরা ডিজিটালভাবে প্রচারের জন্য অনুমতি দিয়ে দিয়েছি। বাছাইয়ের পরে প্রতীক বরাদ্দের আগেই প্রার্থীরা ডিজিটাল মিডিয়ায় প্রচার করতে পারবের এবং জনগণের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎ করে প্রচার করতে পারবেন। আমরা এটা উন্মুক্ত করে দিয়েছি।’ 

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) বিকালে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে গাজীপুর জেলার নির্বাচন সংশ্লিষ্ট অংশীজনদের সঙ্গে মতবিনিময়সভা শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ সব কথা বলেন ইসি আলমগীর।

গাজীপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের ভাওয়াল সম্মেলন কক্ষে বিকাল ৩টায় মতবিনিময় সভা শুরু হয়। প্রথমে ছবি তোলার পর গণমাধ্যমকর্মীদের সভাকক্ষ থেকে বের করে দেওয়া হয়। পরে রুদ্ধদ্বার মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন গাজীপুরের জেলা প্রশাসক আবুল ফাতে মোহাম্মদ সফিকুল ইসলাম।

মতবিনিময় সভায় আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ফরিদুল ইসলাম, গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকেরা, সকল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, গাজীপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এ এইচ এম কামরুল হাসান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 

নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর বলেন, ইতোপূর্বে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন এবং জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনগুলো সকল ক্ষেত্রে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে। এটা শুধু গাজীপুরবাসী নয়, দেশ এবং আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত। গত নির্বাচনে যে সমস্ত কর্মকর্তারা দায়িত্ব পালন করেছেন, তারা এই নির্বাচনেও এখানে কর্মরত আছেন। তাদের যে অভিজ্ঞতা আছে, সেই অভিজ্ঞতার আলোকে এই নির্বাচন আরও সুন্দর ও শান্তিপূর্ণ করার লক্ষ্যে তারা যে সমস্ত পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন, সেই পরিকল্পনা আমাকে জানিয়েছেন। সেই সঙ্গে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকেও আমাদের যে নতুন নতুন চিন্তা ভাবনাগুলো আছে, সেগুলো বলেছি। তাদের সুষ্ঠু নির্বাচন করার জন্য নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে তারা সকল রকম সহায়তা পাবে। কমিশনের পক্ষ থেকে আমি এগুলো তাদের বলেছি।’

নির্বাচন কমিশনার আরও বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে ভোটারদের উদ্বুদ্ধ করার জন্য টিভিতে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন প্রচার করা হয়, ভোটাধিকার আপনার নাগরিক অধিকার। আমাদের ভোটাররা এখন যথেষ্ট সচেতন। প্রার্থীরা প্রচার করেন, আমরা প্রিজাটিং অফিসারদের প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকি, পত্র-পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়। গণমাধ্যমগুলোতে তারা নিয়মিত খবর দেখেন, আপনাদের অনুষ্ঠান দেখেন, এভাবেই প্রচার হয়ে যায়। আলাদাভাবে প্রচার করার খুব একটা প্রয়োজন পড়ে না।’

রেজাউল/বকুল 

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়