ঢাকা     বুধবার   ২৯ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪৩১

সাক্ষ্য দিতে এসে অপহরণ, ৩ দিন পর উদ্ধার হলেন রোহিঙ্গা নেতা

কক্সবাজার প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:৩৬, ২৪ এপ্রিল ২০২৪   আপডেট: ২২:৪৫, ২৪ এপ্রিল ২০২৪
সাক্ষ্য দিতে এসে অপহরণ, ৩ দিন পর উদ্ধার হলেন রোহিঙ্গা নেতা

গ্রেপ্তার শাহ আলম

কক্সবাজার আদালতে সাক্ষ্য দিতে এসে অপহরণের শিকার এক রোহিঙ্গা নেতাকে ৩ দিন পর উদ্ধার করেছে র‍্যাব। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে একজনকে।

বুধবার (২৪ এপ্রিল) বিকেলে র‍্যাব-১৫ কক্সবাজার ব্যাটালিয়ন কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ব্যাটালিয়নের জ্যেষ্ঠ সহকারী পরিচালক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আনোয়ার হোসাইন শামীম।

গ্রেপ্তার শাহ আলম (৪২) কক্সবাজার পৌরসভার পাহাড়তলী এলাকার সোনা মিয়ার ছেলে। তিনি কক্সবাজার শহরকেন্দ্রিক সংঘবদ্ধ অপহরণকারী চক্রের মূল হোতা।

উদ্ধার হওয়া মো. রফিক (৩২) উখিয়া উপজেলার ঘোনারপাড়া ১৯ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের সি-১৫ ব্লকের মো. ছোবহানের ছেলে। তিনি ক্যাম্পটির প্রধান কমিউনিটি নেতা (হেড মাঝি)।

র‍্যাব জানায়, গত রোববার কক্সবাজার আদালতে একটি মামলায় সাক্ষ্য দিতে আসেন রফিক। সাক্ষ্য দেওয়া শেষে বাড়ির উদ্দেশ্যে বের হন তিনি। সেসময় সরকারি সংস্থার লোক পরিচয়ে সংঘবদ্ধ একটি অপরাধী চক্র তাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে রফিককে অজ্ঞাত স্থানে জিম্মি রেখে অপহরণকারী চক্রের এক সদস্য তার স্বজনকে কল দিয়ে ১৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন। টাকা দিতে না পারলে রফিককে মেরে ফেলারও হুমকিও দেওয়া হয়। এ বিষয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর র‌্যাব অবগত হয়। পরে অপহরণের শিকার ব্যক্তিকে উদ্ধার এবং জড়িতদের গ্রেপ্তারে অভিযান শুরু করে। বুধবার ভোরে অভিযান চালিয়ে অপহরণের শিকার রফিককে উদ্ধার ও জড়িত একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় পালিয়ে যান অপহরণকারী চক্রের ৫-৬ সদস্য।

তারেকুর/কেআই

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়