ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৫ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ১১ ১৪৩১

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

নড়াইলে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় বাড়িঘর ভাঙচুর, শিশুসহ আহত ৩

নড়াইল প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:২৮, ২৬ মে ২০২৪  
নড়াইলে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় বাড়িঘর ভাঙচুর, শিশুসহ আহত ৩

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জয়ী ও পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি হামলা ও সংঘর্ষের সময় কমপক্ষে ২০টি বাড়িঘর ভাঙচুর করা হয়েছে। এসময় শিশুসহ অন্তত তিন জন আহত হয়েছে।

শনিবার (২৫ মে) রাত সাড়ে ৯টা থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত উপজেলার লাহুড়িয়া ইউনিয়নে ডহরপাড়া এগারনলী, তালুকপাড়া ও লাহুড়িয়া পশ্চিমপাড়া গ্রামে এসব ঘটেছে। আহতদের নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পর থেকে লাহুড়িয়া ইউনিয়নে বিজয়ী প্রার্থী একেএম ফয়জুল হক ও পরাজিত প্রার্থী আ. হান্নান রুনুর গ্রামের বাড়ি লাহুড়িয়ায় উভয়ের সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। এ ঘটনার জের ধরে শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ডহরপাড়ায় জয়ী প্রার্থীর সমর্থকরা পরাজিত প্রার্থীর সমর্থক তরিকুল মোল্যাকে কুপিয়ে আহত করে। এঘটনা এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে লাহুড়িয়া বাজারে প্রতিপক্ষ পরাজিত প্রার্থীর সমর্থকরা গিয়াসউদ্দিন মোল্যাকে (৫০) বেধড়ক পিটিয়ে আহত করে। আহত গিয়াসউদ্দিন মোল্যাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে প্রথমে নড়াইল সদর হাসপাতালে এবং পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এমনকি আহত তরিকুল মোল্যার তিন বছরের মেয়ে সুমাইয়াকে কুপিয়ে আহত করেছে জয়ী প্রার্থীর সমর্থকরা।

উল্লেখ্য, গত ২১ মে লোহাগড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বেসরকারি ফলাফলে জয়ী হয়েছেন একেএম ফয়জুল হক রোম (আনারস)। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন এস এম আব্দুল হান্নান রুনু (হেলিকপ্টার)।

এ ব্যাপারে লাহুড়িয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ইনচার্জ) পরিদর্শক সেলিম উদ্দিন বলেন, ঘটনার পরপরই ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এলাকার পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক। ঘটনার সাথে জড়িত ব্যক্তিদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

শরিফুল/ফয়সাল

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়