ঢাকা     রোববার   ১৪ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ১ ১৪৩১

ভর্তিচ্ছুদের সেবায় সদা প্রস্তুত জাবি রেড ক্রিসেন্ট

জাবি সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:৪৭, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  
ভর্তিচ্ছুদের সেবায় সদা প্রস্তুত জাবি রেড ক্রিসেন্ট

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) চলছে ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা। এতে অংশগ্রহণকারী ভর্তিচ্ছু ও অভিভাবকদের প্রাথমিক চিকিৎসাসহ বিভিন্ন সেবা প্রদান করতে কাজ করছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি পরিচালিত জাবি যুব রেড ক্রিসেন্ট (আরসিওয়াই)।

ভর্তিচ্ছুদের পাশাপাশি ভর্তি পরীক্ষায় দায়িত্বরত শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরও এ উদ্যোগের আওতায় স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করা হচ্ছে।
এজন্য জাবি যুব রেড ক্রিসেন্টের পক্ষ থেকে ‘ইমার্জেন্সি রেসপন্স টিম’ গঠন করা হয়েছে। এ টিমের আওতায় ৬০ জন স্বেচ্ছাসেবক বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদ, কলা ও মানবিক অনুষদ, জীববিজ্ঞান অনুষদের, পুরাতন কলা ভবন ও জাবি স্কুল অ্যান্ড কলেজের সামনে কাজ করছে। এছাড়া জীববিজ্ঞান অনুষদ পরীক্ষা কেন্দ্রের জন্য একটি টিম সর্বদা প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ইমার্জেন্সি রেসপন্সটিমের সদস্যরা আগত আহত কিংবা অসুস্থ ভর্তিচ্ছু ও অভিভাবকদের প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করছে এবং গুরুতর আহত ব্যক্তিদের প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান পূর্বক বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করছে। এছাড়া মনোসামাজিক সহযোগিতা, মাস্ক ও স্যানিটাইজার বিতরণ, ভর্তি পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষার স্থান খুঁজে পেতে সাহায্য-সহযোগিতা করছে এবং বিভিন্ন অতিমারি বিষয়ক জন সচেতনতামূলক প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছে।

এর আগে, গত রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) চুয়াডাঙ্গা থেকে ভর্তি পরীক্ষা দিতে এসে অসুস্থ হয়ে পড়েন নৈশিন রুমালি তিশা নামের একজন ভর্তিচ্ছু। দীর্ঘ ভ্রমণ ও তীব্র গরমে অসুস্থ হয়ে পড়লে পরীক্ষা না দিয়ে ফিরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। তবে ইমার্জেন্সি রেসপন্স টিমের তার অসুস্থতার বিষয়টি নজরে আসলে তারা দ্রুত ওই পরীক্ষার্থীকে নতুন কলা ভবনের সামনে তাদের তাবুতে নিয়ে আসেন।  তাৎক্ষণিকভাবে তাকে খাবার স্যালাইন পান করানোসহ প্রয়োজনীয় প্রাথমিক চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হয়। এমন প্রতিকূল সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আন্তরিক সহায়তা পেয়ে শারীরিক এবং মানসিকভাবে ভালো অনুভব করেন তিনি। এরপর রেড ক্রিসেন্টের নারী সদস্যদের সহায়তায় তাকে পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছে দেয়া হয়।

সেবা নিতে আসা গোলাম রাব্বি নামের এক ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী বলেন, পরীক্ষা দিতে এসে আমি দুর্ঘটনার শিকার হই। রিকশা থেকে পড়ে গিয়ে পা কেটে যায় এবং প্রচণ্ড ব্যাথা পাই। রেড ক্রিসেন্টের ইমারজেন্সি রেসপন্স টিমের সহায়তায় আমাকে তাদের তাবুতে নিয়ে এসে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান কর হয়। এরপর আমাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে গিয়ে পায়ে ব্যান্ডেজ করে দেওয়া হয়। উনাদের প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তারা আমাকে পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছে দিয়ে আসেন।

ডেপুটি ইয়ুথ লিডার নাফিউল আলম অয়ন বলেন, প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত চার বছর ধরে যুব রেড ক্রিসেন্ট  দল দূরদূরান্ত থেকে আগত ভর্তিচ্ছু ও অভিভাবকদের তাৎক্ষনিক সহায়তা এবং সেবা প্রদান করে যাচ্ছে। ভর্তি পরীক্ষার একেক দিনে গড়ে প্রায় ৭০-৮০ জন আমাদের কাছে প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা নিতে আসেন। ভর্তিচ্ছুদের নির্বিঘ্নে ভর্তি পরীক্ষা সুযোগ করে দিতে আমরা আমাদের সাধ্যের সর্বোচ্চটুকু দিয়ে সক্রিয়ভাবে কাজ করে যাচ্ছি।

সার্বিক বিষয়ে জাবি যুব রেড ক্রিসেন্ট ইনচার্জ এবং নাটক ও নাট্যততত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মহিবুর রৌফ শৈবাল বলেন, বিশাল এই কার্যক্রমে সেবা প্রদানকারী স্বেচ্ছাসেবকের সংখ্যা চাহিদার তুলনায় অপ্রতুল। আমাদের দলগত কার্যক্রমে কার্যনির্বাহী কমিটির ১৫ জন সদস্যসহ সাধারণ স্বেচ্ছাসেবক রয়েছে ৪৫ জন। ভবিষ্যতে আরে ২০ জন সেচ্ছাসেবক অন্তভূক্তিকরনের কাজ চলমান।

জাবি রেড ক্রিসেন্টের সার্বিক কার্যক্রমের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ইতোমধ্যে বাংলাদেশর সব বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ‘যুব রেড ক্রিসেন্ট, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়’ দল সর্বপ্রথম জলবায়ু সংকট ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ে ৪০ জন স্বেচ্ছাসেবককে 'ইউথ অ্যাডাপ্ট ট্রেনিং-২০২৪' প্রদান ও সনদ বিতরণ  করেছে। এছাড়া এ বছর প্রাথমিক চিকিৎসা, সার্চ অ্যান্ড রেসকিউ প্রশিক্ষণ আয়োজন, জলবায়ু স্বেচ্ছাসেবক সম্মেলন-২০২৪ এর পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ১০ আগস্ট পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে সর্বপ্রথম জাবিতে ‘যুব রেড ক্রিসেন্টের দল’ প্রতিষ্ঠিত হয়। বিভিন্ন  জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দিবস পালন ছাড়াও সেচ্ছাসেবীদের প্রশিক্ষণের জন্য সারা বছর নানা কার্যক্রম গ্রহণ করে সংগঠন। দুর্যোগ মোকাবেলায় জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষিত করে দুর্যোগ মোকাবেলা ও প্রস্তুতিতে দক্ষ জনশক্তি তৈরি করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে তারা।

/আহসান/মেহেদী/

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়