ঢাকা     সোমবার   ২৭ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ১৩ ১৪৩১

লালবাগ কেল্লায় ঢুকতে না পেরে দর্শনার্থীদের মন খারাপ 

মামুন খান || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:২৪, ১৪ এপ্রিল ২০২৪  
লালবাগ কেল্লায় ঢুকতে না পেরে দর্শনার্থীদের মন খারাপ 

মোগল আমলের বাংলাদেশের একমাত্র ঐতিহাসিক নিদর্শন লালবাগ কেল্লা। রাজধানী ঢাকার কেন্দ্রস্থলে মোঘল আমলে স্থাপিত প্রাচীন দুর্গ এটি। মোগল আমলের ইতিহাস, ঐতিহ্যের সঙ্গে পরিচিত হতে অনেকে ঘুরতে আসেন এখানে। যে কোনো উৎসবে দর্শনার্থীদের উপস্থিতি আরও বেড়ে যায়। রোববার সাপ্তাহিক বন্ধ থাকে লালবাগ কেল্লা। তবে, ঈদুল ফিতর ও পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে দর্শনার্থীদের জন্য আজ খোলা রাখা হয় কেল্লাটি। দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখরিত ছিলো ঐতিহাসিক এ নিদর্শনটি। অনেকে আসেন পড়ন্ত বিকেলে। শেষ সময়ে কেল্লায় ঢুকতে না পেরে অনেকে মন খারাপ করে চলে যান। কর্তৃপক্ষের ওপর ক্ষোভও ঝাড়েন তারা।

রোববার (১৪ এপ্রিল) লালবাগ কেল্লায় ঘুরে এমন চিত্র দেখা যায়।

দেখা যায়, দলে দলে দর্শনার্থীরা কেল্লায় প্রবেশ করছেন। কেউ এসেছেন বাবার সাথে, কেউ মা। আবার কেউ বা এসেছেন বন্ধুর সাথে। অনেকে এসেছেন পুরো পরিবার নিয়ে। তারা পুরো এলাকা ঘুরে ঘুরে দেখছেন। মনোরম পরিবেশে অনেকে বসে আছেন।

লাকি আক্তার নামে এক দর্শনার্থী জানান, লালবাগ কেল্লার বিকেলটা অনেক সুন্দর। সন্তানদের নিয়ে এসেছি। তারাও অনেক খুশি। শাহজাহান মিয়া নামে এক দর্শনার্থী জানান, সারা বছর কাজকর্ম নিয়ে ব্যস্ত থাকতে হয়। পরিবার-পরিজন নিয়ে সেভাবে ঘোরাফেরার সুযোগ হয় না। তাই বের হয়েছি পরিবার নিয়ে। কেল্লায় এসে ভালোই লাগছে।

লালবাগ কেল্লা সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য খোলা থাকে। পৌনে ৫টা পর্যন্ত কেল্লায় প্রবেশ করা যায়। এরপর আর প্রবেশ করতে দেওয়া হয়।

এদিন প্রবেশের সময় শেষে অনেকে গেটের সামনে ভিড় করেন। তবে তারা ভেতরে ঢুকতে পারেননি। ঢুকতে না পেরে অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

দেখা যায়, এক দম্পতি গেটের সামনে দাঁড়িয়ে আছেন। তারা সেখানকার নিরাপত্তায় নিয়োজিত আনসার সদস্যকে আকুতি জানাচ্ছেন ১০ মিনিটের জন্য হলেও যেন তাদের প্রবেশ করতে দেওয়া হয়। আনসার সদস্য তাদের জানান, সময় শেষ। এখন এক মিনিটের জন্যও আর ঢুকতে দেওয়া হবে না।

ওই দম্পতির সাথে কথা বলে জানা যায়, তারা নরসিংদী থেকে এসেছেন। একটা প্রোগ্রামে অংশ নেন। সেখান থেকে লালবাগ কেল্লায় ঘুরতে এসেছেন। ওই দম্পতি জানান, অনেক দূর থেকে এসেছি। কিন্তু প্রবেশ করতে পারলাম না। মন খারাপ। মন খারাপ নিয়েই চলে যেতে হবে। তখনো একজন নারী আসেন গেটের সামনে। ক্ষোভের সাথে জানান, ঈদের সময়ও বন্ধ করে রেখেছে। উৎসবের দিনেও সময়মত বন্ধ করতে হবে? সময় বাড়ালে কী হবে।

নিরাপত্তাকর্মী হুমায়ন জানান, আমাদের দায়িত্ব নিরাপত্তার বিষয়ে নজর রাখা। সময় পার হয়ে গেলে কিছু করার নেই।

লালবাগ কেল্লার কর্মচারী আবু বক্বর শেখ জানান, লালবাগ কেল্লায় রোববার সাপ্তাহিক ছুটি। পহেলা বৈশাখ ও ঈদুল ফিতরের কারণে আজও খোলা রাখা হয়েছে। দর্শনার্থী ভালোই আসছে। যদিও সকালে কম ছিল, দুপুরের পর থেকে বাড়া শুরু করেছে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে ৪টা ৪৫ পর্যন্ত কেল্লায় প্রবেশ করা যায়। ৫টা থেকে সবাইকে বের করে দেওয়া হয়। এরপর আর প্রবেশের কোনো সুযোগ নেই। এটা সরকারি নিয়ম।

রোববার সাপ্তাহিক ছুটি দিনে লালবাগ কেল্লা খোলা থাকায় আগামীকাল সোমবার বন্ধ থাকবে বলে জানান তিনি। 

/এনএইচ/

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়