ঢাকা     সোমবার   ০৪ মার্চ ২০২৪ ||  ফাল্গুন ২০ ১৪৩০

বৃষ্টিতে ভেজার পর সুস্থ থাকতে যা করবেন

দেহঘড়ি ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:২৪, ৬ জুলাই ২০২৩   আপডেট: ২২:৩০, ৬ জুলাই ২০২৩
বৃষ্টিতে ভেজার পর সুস্থ থাকতে যা করবেন

বর্ষা মৌসুম চলছে। ঘরের ভেতর বসে বর্ষা যতটা ‍উপভোগ্য, ঘরের বাইরে ততটা বিড়ম্বনার। বৃষ্টি হলেই রাস্তায় কাদাপানি। আর সঙ্গে ছাতা না থাকলে তো বৃষ্টিতে ভিজে অসুখ-বিসুখের হাতছানি। বৃষ্টিতে ভিজে বিশেষ করে অনেকেই ঠান্ডা-সর্দি কিংবা ঠান্ডা-জ্বরে ভোগেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বোল্ড স্কাইয়ের প্রতিবেদন অনুসারে জেনে নিন, বৃষ্টিতে ভিজলেও ঠান্ডা লাগানো এড়ানোর কয়েকটি ঘরোয়া পদ্ধতি।

* ভিটামিন-সি ঠান্ডা লাগা প্রতিরোধ করতে পারে। শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়িয়ে দেয়। বৃষ্টিতে ভিজে ঠান্ডা লেগে যাওয়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। তাই বর্ষাকালে ভিটামিন-সি সমৃদ্ধ খাবার যত খাওয়া যায় ততই ভালো। লেবু থেকে শুরু করে বিভিন্ন টকজাতীয় ফল খেয়েই সহজেই ঠান্ডা লাগা আটকানো সম্ভব।

* বৃষ্টি ভেজার পর ঠান্ডা লাগার ভয়ে অনেকেই গোসল এড়িয়ে যান। কিন্তু এতে ঠান্ডা লাগে আরো বেশি। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ভেজা জামাকাপড় ছেড়ে ফেলা উচিত। তারপর হালকা গরম পানিতে পা ধুয়ে ফেলা উচিত। যাতে পায়ে জীবাণুর আক্রমণ প্রতিহত করা যায়। এরপর হালকা গরম পানিতে গোসল সেরে নিন। তাহলে জীবাণু এবং সংক্রমণ থেকে রেহাই মিলবে। সেইসঙ্গে শরীরে ঠান্ডা অনুভূত হবে না। অ্যান্টিসেপটিক সাবান ব্যবহার করলেও জীবাণুর হাত থেকে বাঁচা সম্ভব। বর্ষা মৌসুমে সূর্যাস্তের পর গোসল করবেন না। তাহলে ঠান্ডা-কাশি হওয়ার সংক্রমণ বাড়তে পারে।

* এরপরও ঠান্ডা লাগার সম্ভাবনা থাকলে দুটি তুলসী পাতা, মধু ও লবঙ্গের সঙ্গে মিশিয়ে খেতে পারেন। বর্ষাকালে যাদের ঠান্ডা লাগার প্রবণতা আছে তারা নিয়মিত এটি খেতে পারেন। তাতে সর্দি-কাশি থেকে মুক্তি পাবেন।

* বৃষ্টিতে ভেজার পর চুল শুকনো করার প্রতি অনেকেই নজর দেন না। শরীর মোছার সঙ্গে মাথাও যে পুরোপুরি শুকিয়েছে তা একেবারে নিশ্চিত করুন। দরকার হলে ড্রায়ারের সাহায্যেও যত তাড়াতাড়ি সম্ভব চুল শুকিয়ে ফেলুন।

* বৃষ্টিতে ভেজার ফলে শরীরের তাপমাত্রা কমে যায়। তাতেই ঠান্ডা লেগে যাওয়ার সম্ভাবনা বাড়তে থাকে। এই অবস্থা আটকাতে এক কাপ মাসালা চা পান করুন। এছাড়া গরম স্যুপ খেতে পারেন। তাহলে অনেকটাই আরাম বোধ করবেন।

* বৃষ্টিতে ভিজে যাওয়ার পরে নিজেকে ফিট রাখতে কিছু স্ট্রেচিং এক্সারসাইজও করতে পারেন। এটি শরীর গরম করবে। এ ছাড়াও রক্ত সঞ্চালনের উন্নতি হবে।

* পানি খাওয়ার যে কোনো বিকল্প নেই, তা সকলেই জানেন। ঠান্ডা লাগার ক্ষেত্রেও এই বিষয়টি মাথায় রাখবেন। অনেক অ্যান্টিবায়োটিকে যে কাজ হয় না তা পানি খেলে হয়। পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি খেলেই শরীর থেকে অনেক জীবাণু বেরিয়ে যায়। তাই এ রকম পরিস্থিতিতে বেশি করে পানি খান।

* বৃষ্টিতে ভিজলে ত্বক খুব শুষ্ক হয়ে যায়। এর ফলে শুষ্ক ত্বকে চুলকানি হতে পারে। তাই গোসলের পর বডি অয়েল বা ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

/ফিরোজ/

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়