ঢাকা     শনিবার   ২২ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৮ ১৪৩১

রাজধানীর কোরবানির হাটগুলোতে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি, আসছে পশু

মামুন খান || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:০৪, ১০ জুন ২০২৪   আপডেট: ১৯:০৫, ১০ জুন ২০২৪
রাজধানীর কোরবানির হাটগুলোতে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি, আসছে পশু

আগামী ১৭ জুন উদযাপিত হবে ঈদুল আজহা। মাঝে আর মাত্র ছয় দিন। রাজধানীতে প্রস্তুত হচ্ছে কোরবানির পশুর হাটগুলো। চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। এসব হাটে ১৩ জুন আনুষ্ঠানিকভাবে কোরবানির পশু বেচাকেনা শুরু হবে।

সোমবার (১০ জুন) পুরান ঢাকার ধোলাইখাল পশুর হাট ঘুরে দেখা গেছে, পিকআপ ভ্যানে করে হাটে পশু নিয়ে আসছেন পশুর খামারি ও ব্যাপারীরা। দয়াগঞ্জ মোড় থেকে কাঠেরপুল সড়কে বেশি পশু দেখা গেছে। তবে, খোলাইখাল এলাকায় এখনো সেভাবে পশু আসেনি। বেচাকেনাও শুরু হয়নি।

এদিকে, শেষ মুহূর্তে হাট প্রস্তুতে ব্যস্ত সময় পার করছেন ইজারাদাররা। বাঁশ বেঁধে বেড়া তৈরি করা হচ্ছে। বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ চলছে। বৃষ্টির নামলে যেন অসুবিধা না হয়, সেজন্য অনেক জায়গায় ছাউনি টাঙানো হয়েছে। অনেক জায়গায় রাস্তায় গর্ত করে বাঁশের খুঁটি বসানো হয়েছে। এদিকে, ইতোমধ্যে পশুর হাটের কারণে যানজট দেখা যাচ্ছে।

এ বিষয়ে জানতে ইজারাদার আসফাক আজিমকে ফোন করা হয়। তিনি ফোন ধরেননি। পরে ইজারা সংশ্লিষ্ট মো. শাহিদ বলেন, সব হাটেই রাস্তা খুঁড়ে বাঁশের খুঁটি বসানো হয়। এ প্রতিবেদক এর বিরোধিতা করলে তিনি বলেন, আচ্ছা, আইল্যান্ডের কাছাকাছি গরু রাখার ব্যবস্থা করব। বিষয়টি নিয়ে সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টি আকর্ষণ করব।

যানজট নিরসনের বিষয়ে জানতে চাইলে মো. শাহিদ বলেন, আমাদের পর্যাপ্ত ভলান্টিয়ার আছেন। তারা প্রস্তুত রয়েছেন, যেন যানজট না হয়।

হাটের প্রস্তুতির বিষয়ে জানতে চাইলে শাহিদ বলেন, প্রস্তুতি চলছে। এখনো পুরোপুরি শেষ হয়নি। কিছু বিক্রেতা গরু নিয়ে চলে আসছেন। তাদের গরুগুলো একটু ভিতরের দিকে রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। 

হাটে পশু দেখতে ভিড় করছেন সাধারণ লোকজন। কেউ কেউ গরুর দাম জিজ্ঞাসা করছেন। বাড়তি উন্মাদনা দেখা গেছে শিশু-কিশোরদের মাঝে। তারা ট্রাক থেকে গরু নামানো দেখছে। অনেকে দলবেঁধে হাট ঘুরে ঘুরে গরু দেখছেন। বড় আকারের গরুর সামনে জটলা দেখা গেছে।

কুষ্টিয়া থেকে ৪০টি গরু নিয়ে রোববার বিকেলে হাটে এসেছেন মো. সুজন নামের এক ব্যবসায়ী। ক্রেতা না থাকায় বসে বসে অলস সময় পার করছেন আর গরুর দেখভাল করছেন।

সুজন এ প্রতিবেদককে বলেন, ৪০টি গরু নিয়ে এসেছি। ৫০ লাখ টাকা দামের চারটি গরু এখনো আনিনি। জায়গা ঠিক হলে নিয়ে আসবো। ভালো দামে বিক্রি হবে বলে আশা করছি।

বিক্রেতারা জানিয়েছেন, সাধারণত ঈদের দুই-তিন দিন আগে ঢাকায় পশু বেচাকেনা পুরোদমে শুরু হয়। এখন যারা হাটে আসছেন, তাদের বেশিরভাগই ঘুরে ঘুরে পশু দেখছেন। দাম জানছেন, কিন্তু দাম বলছেন না।

মামুন/রফিক

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়