ঢাকা     সোমবার   ১৫ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ২ ১৪৩১

বর্তমানেই ‘বাঁচেন’ তাইজুল

ক্রীড়া প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৫২, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  
বর্তমানেই ‘বাঁচেন’ তাইজুল

সাদা পোশাকের ক্রিকেটে তাইজুল যতটা জনপ্রিয়, রঙিনে ঠিক ততটাই উল্টো! কেন যেন নির্বাচকরা তাকে রঙিন পোশাকে বিবেচনাতেই আনতে চান না। এমন না যে পারফরম্যান্সে ঘাটতি কিংবা অভিজ্ঞতার অভাব।

ঘরোয়া ক্রিকেটে সফলতার পথ মাড়িয়ে জায়গা করে নিয়েছিলেন ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দলে। ওয়ানডেতে তাও তাকে কয়েকবার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল। সেগুলোতে ভালোও করেছেন। কিন্তু টি-টোয়েন্টি তার জন্য বিরাট ধাঁধা! ২০১৯ সালে টি-টোয়েন্টি ক্যাপ পেয়েছিলেন। খেলেছেন কেবল ২ টি-টোয়েন্টি। গত পাঁচ বছরে তাকে এই ফরম্যাটে বিবেচনাতেই আনা হয়নি।

লম্বা অপেক্ষা ফুরিয়েছে আসন্ন শ্রীলঙ্কা সিরিজে। বাঁহাতি স্পিনারকে নেওয়া হয়েছে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে স্কোয়াডে। লম্বা সময় পর টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে ফেরায় তাইজুল খুশি। তবে সামনে সুযোগ হবে কিনা তা নিশ্চিত নন। এজন্য বর্তমান নিয়েই থাকতে চান।

‘প্রত্যেকটা খেলোয়াড় কিন্তু দেশের হয়ে সব ফরম্যাট খেলবে না সব সময়। এটা মেনে নিতে হবে। অনেক সময় দেখবেন ভালো খেলার পরও সুযোগটা আসে না। আমি একটা জিনিস চেষ্টা করি, যে সময়টা আসবে আমার কাছে ওইটা কাজে লাগিয়ে নিজেকে মেলে ধরার। সামনে আবার এই সিরিজের পর সুযোগ আসবে কিনা সেটাও জানি না। তাই কেবল বর্তমান নিয়ে আমি চিন্তা করি।’

ভালো করেও সুযোগ না পাওয়ায় শুরুর দিকে খারাপ লাগত তারও। কিন্তু এখন সেই অনুভূতি কাজ করে না তারও, ‘এটা এখন লাগে না। প্রথম দিকে লাগত এখন ইউসড টু হয়ে গেছি।’

বিপিএলে আজ তাইজুল ফরচুন বরিশালের হয়ে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে ২০ রানে ৩ উইকেট পেয়েছেন। লিটনকে আর্ম ডেলিভারিতে বোল্ডের পর মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন ও আন্দ্রে রাসেলের উইকেট পান। বরিশালের জার্সিতে খুব একটা সুযোগ পাননি। তবে যখনই সুযোগ পেয়েছেন মেলে ধরেছেন। নিজের অর্জনকে তাই বড় করেই দেখছেন এই স্পিনার, ‘ভালো কিছু করলে ভালো লাগা তো স্বাভাবিক। আপনি যখন একজন খেলোয়াড়ের ওপর বিশ্বাস রাখবেন তখন ওই খেলোয়াড়ের ভালো করাটা স্বাভাবিক। এই জায়গায় হয়তো ঘাটতি ছিল। আমি বলবো, খেলোয়াড়দের সহযোগিতা করা গুরুত্বপূর্ণ।’

টেস্ট ক্রিকেটে মাঠে নামার আগে সব সময়ই তাইজুলকে অটো চয়েজ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। রঙিন পোশাকে তাইজুল থাকেন আড়ালে।  তবে দুই ফরম্যাটে বোলিংয়ে তাইজুল খুব বেশি পার্থক্য পান না, ‘নতুন কিছু আয়ত্বের বিষয় না। হয়তো বলের রংটাই কেবল পরিবর্তন হচ্ছে। কিছু বৈচিত্র্য তো লাগবেই। গতির বৈচিত্র্য কিংবা অ্যাঙ্গেল বৈচিত্র্য। এই জিনিসগুলোই লাগবে। এই জিনিসগুলো সঠিক সময়ে বাস্তবায়ন করাটা গুরুত্বপূর্ণ।’

ইয়াসিন/আমিনুল

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়