ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৫ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ১০ ১৪৩১

পুরাণ ঝড়ে উড়ে গেছে আফগানিস্তান

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:২১, ১৮ জুন ২০২৪   আপডেট: ১১:০৩, ১৮ জুন ২০২৪
পুরাণ ঝড়ে উড়ে গেছে আফগানিস্তান

আগের তিন ম্যাচে তিনটিতেই জয়। সামনে যারাই এসেছে গুঁড়িয়ে দিয়েছিলেন রশিদ খানরা। এবার দেখলেন মুদ্রার উলটোপিঠ। গ্রুপ ‘সি’ থেকে সমান জয়ে আফগানিস্তানের সঙ্গে সুপার এইট আগেই নিশ্চিত হয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের।

নিয়ম রক্ষার শেষ ম্যাচটিতে রশিদদের ঘূর্ণিজাদু ম্লান করে নিকোলাস পুরাণদের ঝড়ে উড়ে গেছে আফগানিস্তান। সেন্ট লুসিয়ায় টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে উইন্ডিজ ৫ উইকেটে ২১৮ রান করে। তাড়া করতে নেমে ১১৪ রানে থামে আফগানিস্তানের ইনিংস।

আগের তিন ম্যাচে বড় ব্যবধানে জেতা আফগানরা এবার নিজেরা হারলো ১০৪ রানে!  রানের ব্যবধানে টি-টোয়েন্টিতে এটি উইন্ডিজের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বড় জয়। হারের দিক বিবেচনায় আফগানদেরও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বড় হার।

চলটি বছর টানা ৮টি টি-টোয়েন্টি জয়ের রেকর্ড গড়েছে স্বাগতিক দেশ, শুধু তাই নয় বিশ্বকাপেও টানা চারটি জয়ের কৃতিত্ব গড়েছে দলটি। ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ঝড়ো হলেও দ্রুত ব্রেন্ডন কিংয়ের উইকেট হারায় উইন্ডিজ। এরপর ৮০ রানের জুটি গড়ে ৮ ওভার না হতেই দলীয় শতরান পার করেন পুরাণ-জনসন চার্লস জুটি। চার্লস ২৭ বলে ৪৩ রান করে আউট হলে ভাঙে জুটি। 

পুরাণ এগোচ্ছিলেন সেঞ্চুরির দিকে। কিন্তু শেষ ওভারের রানআউটে সেটি আর হলো না। মাত্র ৫৩ বলে সর্বোচ্চ ৯৮ রানের ইনিংস খেলে পুরাণ ফেরেন সাজঘরে। ৬টি চার ও ৮টি ছক্কায় উইন্ডিজ অধিনায়কের ইনিংসটি সাজানো ছিল। 

এ ছাড়া রভম্যান পাওয়েল ২৬ ও শাই হোপ ২৫ রান করেন। তাতে উইন্ডিজের রান পাহাড় চুড়ায় ওঠে যায়। আফগানদের হয়ে সর্বোচ্চ ২ উইকেট নেন গুলবাদিন। আজমতুল্লাহ ওমরজাই ১ ওভারে দেন ৩৬ রান! সব মিলিয়ে ২ ওভারে ৪১ রান দিয়ে ওমরজাই নেন ১ উইকেট। 

তাড়া করতে নেমে শূন্য রানে ফেরেন রহমানুল্লাহ গুরবাজ। তার আউটে ধাক্কা খায় আফগানিস্তান। পাওয়ার প্লেতে মাত্র ৪৫ রান তোলে দলটি। ইবরাহীম জাদরান ২৮ বলে সর্বোচ্চ ৩৮ রান করলেও আর কোনো ব্যাটার থিতু হয়ে কার্যকর ইনিংস খেলতে পারেননি। 

শেষ পর্যন্ত টেনেটুনে ১০০ রান পার করে দলটি। আজমতুল্লাহ ওমরজাই ২৩, রশিদ ১৮ ও করিম জানাত  ১৪ রান করেন। উইন্ডিজের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন ওবেদ ম্যাককয়। 

গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সুপার এইট নিশ্চিত করা উইন্ডিজ পড়েছে গ্রুপ টুতে। তাদের প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ড ও যুক্তরাষ্ট্র। অন্যদিকে রানার্স আপ হওয়া আফগানদের প্রতিপক্ষ হলো অস্ট্রেলিয়া, ভারত ও বাংলাদেশ। সি গ্রুপ থেকে বাদ পড়েছে নিউ জিল্যান্ড, উগান্ডা ও পাপুয়া নিউগিনি।  

ঢাকা/রিয়াদ

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ