ঢাকা     রোববার   ২১ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ৬ ১৪৩১

শেষ ষোলোর স্বপ্নে মুখোমুখি ইতালি-ক্রোয়েশিয়া

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:৩১, ২৪ জুন ২০২৪   আপডেট: ২২:১০, ২৪ জুন ২০২৪
শেষ ষোলোর স্বপ্নে মুখোমুখি ইতালি-ক্রোয়েশিয়া

ইউরোর ‘বি’ গ্রুপে দুই ম্যাচ জিতে ইতোমধ্যে শেষ ষোলো নিশ্চিত করেছে স্পেন। তবে সম্ভাবনা জেগে আছে ইতালি, ক্রোয়েশিয়া ও আলবেনিয়ার। নকআউটপর্বে যাওয়ার লক্ষ্যে আজ দিবাগত রাতে মাঠে নামছে ইতালি, ক্রোয়েশিয়া ও আলবেনিয়া।

দুই ম্যাচের একটিতে জিতে ও একটিতে হেরে ৩ পয়েন্ট নিয়ে ইতালি আছে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে। আজ ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে তারা কোনোরকমে ড্র করলেই চলে যাবে শেষ ষোলোতে। অন্যদিকে ক্রোয়েশিয়া যদি হারিয়ে দিতে পারে ইতালিকে তাহলে নকআউটপর্বে জায়গা করে নিবে ২০২২ বিশ্বকাপে তৃতীয় হওয়া ক্রোয়াটরা।

অন্যদিকে ইতালি-ক্রোয়েশিয়ার ম্যাচ যদি ড্র হয় আর আলবেনিয়া যদি ২ গোলের বেশি ব্যবধানে জয় পায় তাহলে ইতালিকে পেছনে ফেলে জায়গা করে নিবে নকআউট পর্বে। তবে স্পেনের বিপক্ষে তাদের ২ গোলের বেশি ব্যবধানে জয় পাওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ। সেক্ষেত্রে শেষ ষোলোর লড়াইয়ে ভালোভাবে টিকে আছে কেবল ইতালি ও ক্রোয়েশিয়া।

ক্রোয়েশিয়া ২০১৮ বিশ্বকাপের ফাইনাল ও ২০২২ বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলার কারণে তাদের প্রতি ভক্ত-সমর্থকদের আলাদা একটা প্রত্যাশা কাজ করে। কিন্তু ডেথ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে তারা স্পেনের কাছে ৩-০ ব্যবধানে হেরে যায়। এরপর আলবেনিয়ার সঙ্গে করে ২-২ গোলে ড্র। তাতে ইউরোর এবারের আসরের গ্রুপপর্ব থেকেই তাদের বিদায়ের শঙ্কা তৈরি হয়েছে।

কেন এমন হচ্ছে এবার? কোচ জ্লাটকো দালিচ মনে করছেন সূচনাটা ভালো হচ্ছে না তাদের, ‘আমরা আসলে আগের দুই ম্যাচে সূচনাটা ভালো করতে পারিনি। আমরা আমাদের স্ট্যান্ডার্ডে ছিলাম না। তা না হলে শুরুতেই গোল হজম করতাম না। ২০২২ বিশ্বকাপে কেবল গ্রুপপর্বে একবার গোল হজম করেছিলাম আগে।’

ইতালির বিপক্ষের ম্যাচটি তাদের জন্য বেশ চ্যালেঞ্জিং হয়ে দাঁড়িয়েছে বলেই মনে করছেন দালিচ, ‘এটা আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। অবশ্যই জিততে হবে এবং এখানে কোনো অতিরিক্ত সময় থাকবে না। জয় ছাড়া যেকোনো ফল আমাদের বাড়ি পাঠিয়ে দিবে। আমরা এতো তাড়াতাড়ি বাড়ি যেতে চাই না।’

ইতালির বিপক্ষে অবশ্য ক্রোয়েশিয়ার রেকর্ড ভালো। ১৯৪২ সাল থেকে ২০১৫ পর্যন্ত ৮ ম্যাচ খেলে হেরেছে মাত্র ১টিতে। তাও সেই ১৯৪২ সালে। এরপর থেকে কখনো আজ্জুরিদের বিপক্ষে হারেনি ক্রোয়াটরা। আজও অবশ্য হারতে পারবে না তারা। কারণ, হারলেই যে নিতে হবে বিদায়।

ক্রোয়েশিয়ার সম্ভাব্য শুরুর লাইনআপ:
লিভাকোভিচ, স্টানিসিচ, সুতালো, জিভারদিওল, সোসা, মদ্রিচ, সুসিচ, কোভাসিচ, প্যাসালিচ, বুদিমির ও ক্রামারিচ।

ইতালির সম্ভাব্য শুরুর লাইনআপ:
দোনারুমা, ডি লরেঞ্জো, বাস্তোনি, ক্যালাফিওরি, ডারমিয়ান, ক্রিস্ট্যান্তে, বারেলা, কিয়েসা, পেলেগ্রিনি, জাকাগ্নি ও রেতেগুই।

ঢাকা/আমিনুল

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়