ঢাকা, শনিবার, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

পাইলট আবিদের স্ত্রীর অবস্থা সঙ্কটাপন্ন

আহমদ নূর : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৩-১৯ ৩:৫৭:১১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৩-১৯ ১০:৫১:২৪ পিএম

নিজস্ব প্র‌তি‌বেদক : নেপালে বিমান বিধ্বস্ত হয়ে নিহত ইউএস-বাংলার পাইলট ক্যাপ্টেন আবিদ সুলতানের স্ত্রী আফসানা খানমের অবস্থা সঙ্কটাপন্ন বল‌ে জানিয়েছে‌ তার পরিবার ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

সোমবার সকালে তিনি দ্বিতীয় দফায় স্ট্র‌োক করেছেন। প‌রে তাৎক্ষণিক তার অস্ত্র‌োপচার ক‌রেন চি‌কিৎস‌কেরা। এখন তাকে ঢাকার আগারগাঁওয়ে নিউরো সায়েন্স হাসপাতা‌লে লাইফ সাপ‌োর্টে রাখা হ‌য়ে‌ছে।

এর আ‌গে রোববার সকালের দিকে রাজধানীর উত্তরার বাসায় স্ট্রোক করেন আফসানা খানম। পরে পরিবারের সদস্যরা তাকে নিউরো সায়েন্স হাসপাতালে নিয়‌ে ‌গে‌লে চি‌কিৎস‌কেরা তার প্রথম দফা সফল অস্ত্রোপচার শেষে ৭২ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণে রাখেন। এরই মধ্যে সোমবার সকালে ফের স্ট্রোক করেন আফসানা খানম।

পাইলট আবিদ সুলতানের পারিবারিক বন্ধু ও ইউএস-বাংলার প্রাক্তন সহকর্মী ক্যাপ্টেন ওয়াহেদু উন নবী চি‌কিৎসকদের বরাত‌ে জানিয়েছেন, আফসানা খানম কোমায় আছেন।

নিউরো সায়েন্স হাসপাতালের ইনফরমেশন ডেস্কের কর্মকর্তা মো. শিহাব জানান, আফসানা খানমের অবস্থা আশঙ্কাজনক। সকালে তি‌নি আবারো স্ট্রোক করছেন। তাকে বর্তমানে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে।

গত ১২ মার্চ ঢাকা ছেড়ে যাওয়া ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের ফ্লাইট বিএস-২১১ নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণকালে দুর্ঘটনায় পড়ে। ৬৭ যাত্রী ও চার ক্রুসহ দুপুর ২টা ২০ মিনিটে বিমানবন্দরের পাশের একটি ফুটবল মাঠে বিধ্বস্ত হয় বিমানটি। আহতদের উদ্ধার করে কাঠমান্ডুর বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পাইলট আবিদ সুলতানকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তির পর ১৩ মার্চ সকালে তিনি মারা যান।

বিমানে ৬৭ যাত্রীর মধ্যে বাংলাদেশি ৩২ জন, নেপালি ৩৩ জন, একজন মালদ্বীপের ও একজন চীনের নাগরিক। তাদের মধ্যে ৩৭ পুরুষ, ২৮ নারী ও দুই শিশু ছিল। এ ঘটনায় ৫১ জন নিহত হন।




রাইজ‌িংবিডি/ঢাকা/১৯ মার্চ ২০১৮/নূর/সাইফুল

Walton Laptop
 
     
Walton