Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৮ মে ২০২১ ||  জ্যৈষ্ঠ ৪ ১৪২৮ ||  ০৪ শাওয়াল ১৪৪২

বগুড়ায় শিশু সিয়াম হত‌্যা: অভিযুক্ত নারী গ্রেপ্তার

বগুড়া প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:৫৯, ১৩ এপ্রিল ২০২১  
বগুড়ায় শিশু সিয়াম হত‌্যা: অভিযুক্ত নারী গ্রেপ্তার

বগুড়ায় সিয়াম (৭) হত‌্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে মালতি বেগম নামের এক নারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) সন্ধ‌্যা সাড়ে ৬টায় পুলিশ সুপার তার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

গ্রেপ্তার মালতি বেগম শাহাজাহানপুর থানার পলিপালাশ গ্রামের মুসলিম উদ্দিনের স্ত্রী।

এর আগে মঙ্গলবার (১২ এপ্রিল) দুপুরে শাজাহানপুর উপজেলার গোহাইল ইউনিয়নের পানিহালী গ্রামের মাঠ থেকে পুলিশ শিশুটির লাশ উদ্ধার করে। নিহত সিয়াম নন্দীগ্রাম উপজেলার ভাটগ্রাম ইউনিয়নের তেতলাগাড়ি গ্রামের মৃত নজরুল ইসলামের ছেলে।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা জানান, ঘটনার দুই সপ্তাহ আগে সারিয়াকান্দিতে সিয়ামের খালার বাড়িতে তার মা সাবিনার সঙ্গে অভিযুক্তের পরিচয় হয়। এরপর মালতিতে নিয়ে তেতলাগাড়িতে নিজ বাড়িতে যায় সাবিনা। সেখানে সাবিনার ভাই মমিনের জমজ বাচ্চাদের দত্তক নিতে চায় মালতি। এ নিয়ে তাদের মাঝে মনোমালিন্যে হয়। এতে সে ক্ষিপ্ত হয়ে সাবিনার ছেলে সিয়ামের ক্ষতি করার পরিকল্পনা করে সে। 

মঙ্গলবার সকাল আনুমানিক সাড়ে ৮টায় মালতি সিয়ামকে খাবার দেওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। যাওয়ার সময় রাস্তায় নিহতের মা ও মামী তাদের দেখলেও সম্পর্কে আত্মীয় হওয়ায় কোনো সন্দেহ হয়নি। মালতি সিয়ামকে একটি দোকান থেকে খাবার কিনে দিয়ে তেতলাগাড়ি গ্রাম থেকে দুই কিলোমিটার উত্তরে শাহাজাহানপুর থানার পানিহালী এলাকার একটি ধান খেতে নিয়ে সিয়ামকে হাসুয়া দিয়ে জবাই করে। পরে মরদেহ পাশের একটি ড্রেনে ফেলে হাসুয়া ধান খেতে রেখে পালিয়ে যায় মালতি।

পুলিশ সুপার বলেন, ‘‘আমাদের কাছে মনে হয়েছে মালতি বাচ্চা দত্তক নেওয়ার কাজ করতো। সাবিনার ভাইয়ের বাচ্চাদের দত্তক না পেয়ে সে হত্যাকাণ্ডটি ঘটিয়েছে। ঘটনার পর পুরো এলাকায় মাইকিং হলে সাবিনা ও তার ভাই বউ ছাড়া আরও দুজন সাক্ষী পাওয়া যায়- তারা মালতিকে সিয়ামকে ধানক্ষেতে নিয়ে যেতে দেখেছিল।

‘পরে মালতির বাড়িতে গিয়ে তাকে রক্তমাখা বোরকা ধূতে দেখা যায়। সেই অবস্থায় আমরা তাকে গ্রেপ্তার করি। পরে সে প্রাথমিকভাবে সবকিছু স্বীকার করে।”

সংবাদ সম্মেলনে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আলী হায়দার চৌধুরী, (অপরাধ) আব্দুর রশিদ, (বিশেষ শাখা) মোতাহার হোসেন, (সদর সার্কেল ও মিডিয়া মুখপাত্র) ফয়সাল মাহমুদসহ শাহাজাহানপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন ও ডিবির ওসি আব্দুর রাজ্জাক উপস্থিত ছিলেন।

এনাম আহমেদ/সনি

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়