ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩ ||  অগ্রহায়ণ ২২ ১৪৩০

চায়ের সঙ্গে খাওয়া যায় কাপ 

মুজাহিদ বিল্লাহ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:১৭, ১৩ নভেম্বর ২০২৩  
চায়ের সঙ্গে খাওয়া যায় কাপ 

আড্ডা জমিয়ে তুলতে এক কাপ চায়ের বিকল্প নেই। অনেকের দিন শুরু হয় চা পান করে। চায়ের সঙ্গে ‘টা’ কথাটি খুব শোনা যায়। অর্থাৎ চায়ের সঙ্গে মুখরোচক কিছু একটা হলে ষোলো কলা যেন পূর্ণ হয়। তাই বলে চায়ের সঙ্গে কাপ খেয়ে ফেলার কথা নিশ্চয়ই কেউ বলবে না। অথচ ‘ইট কাপ’ নামে এমন এক কাপ তৈরি করা হয়েছে যেটি খাওয়া যাবে। 

সাধারণত আমরা চা পান করি কাচ, মাটি বা চিনামাটির তৈরি কাপে অথবা ওয়ান টাইম গ্লাসে। তবে ‘ইট কাপ’ এমন এক ধরনের চা পানের পাত্র যা বিশেষ এক ধরনের উপাদান দিয়ে তৈরি। কোন আইসক্রিমের বাইরের স্তরের মতো মচমচে এই কাপ। ফলে এই কাপে চা পান শেষ করে আপনি অনায়াসে কাপটি খেতে পারবেন। এ জন্য আপনাকে বিদেশে যেতেও হবে না। রাজধানীর লক্ষ্মীবাজারে (কবি নজরুল সরকারি কলেজের সামনে) বিসমিল্লাহ ক্যাফেইন টি এন্ড কফি হাউজে দেখা মিলবে এই বিশেষ চায়ের কাপ। 

ইউটিউবে এ ধরনের কাপে চা পান করতে দেখে আগ্রহী হন সুমন আহমেদ। ভাবতে থাকেন তার দোকানেও তিনি গ্রাহকের জন্য এ ধরনের কাপ রাখবেন। খোঁজ করে জানতে পারেন ভারতে এ ধরনের কাপ পাওয়া যায়। পরে ভারত থেকে বিশেষ এই কাপ নিয়ে আসেন তিনি। যদিও এখন বাংলাদেশেই এ ধরনের কাপ তৈরি হচ্ছে। 
কাপ বিশেষ হলেও এই কাপের চাও কিন্তু বিশেষ। এই চা প্রস্তুত করতে ব্যবহার করা হয় কয়লার আগুন; তান্দুরী চা নামেই এটি পরিচিত। মচমচে খাবার উপযোগী কাপে তান্দুরী চা ঢেলে তার উপরে যোগ করা হয় বিশেষ চকলেট, গুঁড়ো দুধ এবং দেওয়া হয় বাহারী রঙের স্প্রিঞ্জেল। এরপর রাজকীয় কাঁসার থালায় পরিবেশন করা হয় চা। সঙ্গে দেওয়া হয় টিস্যু। 

এ ব্যাপারে কথা হয় সুমনের সাথে। রাইজিংবিডিকে সুমন বলেন, আমি ইউটিউবে দেখে দোকানে বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নেই। ইন্ডিয়া থেকে আমি এই কাপ আনিয়েছি। অনেকেই দূর থেকে এই কাপসহ চা খেতে আসেন। নতুন আইটেম হলেও ভালোই চলছে। তবে আশার কথা, আমাদের এখানেও এই কাপ তৈরি হচ্ছে। দামও কম। শুধু কাপের দাম ৩০ টাকা।

রাইজিংবিডির সাথে কথা হয় ফাহিম নামে একজন চা-প্রেমীর। তিনিও এই চা পান করেছেন। তার ভাষ্য-  চায়ের স্বাদ ভালোই। অন্য চায়ের চেয়ে আলাদা। কাপটা খাওয়া যায় এটা নতুনত্ব। তবে কাপটা একটু শক্ত। প্রথমে ভেবেছিলাম কোন আইসক্রিমের মতো নর্মাল হবে কিন্তু এটা তার চেয়েও শক্ত।

সুমাইয়া চা পান করতে এসেছেন বান্ধবীকে নিয়ে। রাইজিংবিডিকে তিনি জানান, ফেসবুকে এই চায়ের কথা শুনে এসেছেন। খেয়ে ভালো লেগেছে। চকলেট থাকার কারণে স্বাদে ভিন্নতা এসেছে বলে জানান তিনি। তবে মূল আকর্ষণ কাপ। কাপটা কীভাবে খাওয়া যায়- এটা দেখার জন্যই আসা। তবে দাম নিয়ে কিছুটা আপত্তি জানিয়েছেন সুমাইয়া। দাম কমানো উচিত বলে মনে করেন তিনি। 

সুমনের চায়ের প্রতি কাপের দাম ৫০ টাকা। এখানে অনেক ধরনের চা বা কফি পাওয়া যায়। খানদানী চা, চকলেট চা, স্ট্রবেরী চা, কেরামেল চা, কাজু বাদাম চা, পনির চা, চকলেট কফি চা, জাফরানী মালাই চা, নবাবী চা, বালু চা, আগুন চা, চকো ব্লাষ্ট চা ইত্যাদি। দাম ৩৫ টাকা থেকে ৮০ টাকা। 

তারা//

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়