ঢাকা     শনিবার   ২০ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৭ ১৪৩১

মেক্সিকোর ঐতিহ্যের প্রতীক তিনি

সাতসতেরো ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৮:৪৯, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   আপডেট: ০৮:৫৬, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
মেক্সিকোর ঐতিহ্যের প্রতীক তিনি

ফ্রিদা কাহলো। যিনি মেক্সিকোর আধুনিক চিত্রকলার সবচেয়ে মেধাবী এবং গুরুত্বপূর্ণ শিল্পী। তাকে বলা হয় মেক্সিকোর ঐতিহ্যের প্রতীক। অভিজ্ঞতা ও সৌন্দর্যের সাহসী প্রকাশের জন্য ফ্রিদা কাহলো আলোচিত ও সমাদৃত। তিনি যথেষ্ট বিতর্কিতও ছিলেন।

তার সম্পর্কে বলা হয়, কাহলো ছিলেন বিপ্লবী, তীব্র বোধসম্পন্ন, খামখেয়ালি, প্যাশনেট। তিনি ছিলেন খুবই যত্নশীল, স্নেহময় আর একেবারেই অনন্য। ছয় বছর বয়সে পোলিওতে তার একটি পা খাটো হয়ে গিয়েছিল। এরপরে ১৮ বছর বয়সে এক ভয়ংকর দুর্ঘটনা ঘটে তার জীবনে। এর পরে প্রায় ৩০টি অপারেশন করাতে হয়েছিল। এই ঘটনা তার জীবনে গভীরভাবে ছাপ ফেলেছিল। এক পর্যায়ে ১৯৫৩ সালে তার পা দুটি কেটে ফেলতে হয়েছিল।

ফ্রিদা কাহলোকে নিয়ে গবেষণা শুরু করেছেন হেনেসত্রোসা। এই গবেষকের প্রধান উদ্দেশ্য ফ্রিদা কাহলোকে মেক্সিকোর বাইরে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেওয়া। সেই সঙ্গে তার ব্যতিক্রমী জীবনের প্রেক্ষাপট কিছুটা বিশ্লেষণ করে দেখা। 

এই গবেষকের মতে, ফ্রিদা কাহলোকে এখন মেক্সিকোর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ চিত্রশিল্পী, ফ্যাশন ডিজাইনার, নারীবাদী, শিল্পী, সংস্কৃতিবান সবাই তাকে নিজেদের মানুষ ভাবে। কারণ মানুষ তার কাজের সঙ্গে দ্রুতই নিজেদের মেলাতে পারে। 

হেনেসত্রোসা বলছেন, ফ্রিদা তেহুয়ানা নামে এক বিশেষ ধরণের পোশাক পরতেন, মেক্সিকোর একটি মাতৃতান্ত্রিক আদিবাসী গোষ্ঠীর নারীরা সে রকম পোশাক পরতেন। এর মাধ্যমে তিনি রাজনৈতিক বিশ্বাস এবং নারীর নিজস্ব শক্তির একটি প্রতীক ফুটিয়ে তুলতেন।

তথ্যসূত্র: বিবিসি

/লিপি

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়