Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৯ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ৩ ১৪২৮ ||  ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সিআরবি বাঁচলে চট্টগ্রাম বাঁচবে: সিআরবি রক্ষা মঞ্চ

জ‌্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৪২, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১  
সিআরবি বাঁচলে চট্টগ্রাম বাঁচবে: সিআরবি রক্ষা মঞ্চ

যেকোনো মূল্যে সিআরবি এলাকায় রেলওয়ে হাসপাতাল বন্ধ করে সেখানে নতুন করে কর্পোরেট হাসপাতাল নির্মাণের প্রচেষ্টাকে প্রতিহত করা হবে। শত বছরের ইতিহাস-ঐতিহ্য, মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত ও চট্টগ্রামের ফুসফুস ‘সিআরবি’ ধ্বংসের চক্রান্ত রুখে দিতে হবে।

সিআরবি’র প্রকৃতি-ঐতিহ্য বাঁচাও, চট্টগ্রাম বাঁচাও, রেলওয়ে হাসপাতাল বাঁচাও, শহীদ স্মৃতি বাঁচাও লেখা ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে সিআরবি রক্ষা মঞ্চ-চট্টগ্রাম শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত মানব বন্ধনে বক্তারা এসব কথা বলেন। 

শ্রমিকনেতা রেজানুর রহমান খান বলেন, ‘আমরা চট্টগ্রাম থেকে এসে আজ সরকারি সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছি। চট্টগ্রামের ফুসফুস সিআরবি রক্ষা করতে হবে। চট্টগ্রামের সব পার্ক বাণিজ্যিক এলাকা হয়ে গেছে। হাঁটার জায়গা পর্যন্ত নেই। একমাত্র জায়গা সিআরবি এলাকা। এখানেও বেসরকারি একটা হাসপাতাল হওয়ার পাঁয়তারা চলছে। সেটা প্রতিহত করার জন্য আমরা আজ এখানে সমবেত হয়েছি।’ 

মঞ্চ-চট্টগ্রাম আয়োজিত মানব বন্ধনে ডা. মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘ঢাকার হাতিরঝিলকে দেশের সর্বোচ্চ আদালত ঢাকার ফুসফুস উল্লেখ করে বিজিএমই-এর ১২তলা ভবনসহ সব ধরনের বাণিজ্যিক স্থাপনা যেখানে নিষিদ্ধ করেছেন, সেখানে চট্টগ্রামের ফুসফুস সিআরবিকে ধ্বংস করছেন চট্টগ্রামের কিছু রাজনীতিবিদ এবং রেলওয়ের কিছু অসাধু কর্মকর্তা। সিআরবি এলাকায় বাঙালি সংস্কৃতি চর্চা অব্যাহত রাখার জন্য প্রতিনিয়ত যেসব সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়, তাও এরা বন্ধ করে দিতে চায়। এটা আমরা হতে দেবো না।’

অধ্যাপক ডা. ফরহাদ মঞ্জুর বলেন, ‘সিআরবি এলাকায় ’৭১ সালের চাকসু জিএস শহীদ মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রবসহ ১০ জন শহীদের কবর রয়েছে। আজ একটি গোষ্ঠী হাসপাতাল বানানোর নামে এসব শহীদদের কবরও গুঁড়িয়ে দিতে দ্বিধা করছে না। বাংলা ভাষাকে যারা তুচ্ছ জ্ঞান করে, তারা বাঙালি সংস্কৃতি বন্ধ করবে, শহীদদের অশ্রদ্ধা করবে, এটাই স্বাভাবিক। এরা মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে, সত্য গোপন করে পিপিপি চুক্তির আওতায়, রেলওয়ে কর্মচারীদের স্বাস্থ্যসেবা দেওয়ার নাম করে চট্টগ্রাম রেলওয়ে হাসপাতালটি হাতিয়ে নিতে চায়। এরা রেলওয়ের সম্পত্তি লুটের পরিকল্পনা করছে। এদেরকে সম্মিলিতভাবে প্রতিহত করতে হবে।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘ইউনাইটেড হাসপাতাল চট্টগ্রামে হোক- সমস্যা নেই, তবে কোনোভাবেই সিআরবি এলাকায় নয়। সিআরবিতে থাকা বর্তমান রেলওয়ে হাসপাতালের জন্য কনসালটেন্ট পদ সৃষ্টিসহ দক্ষ জনবল নিয়োগ দিয়ে রেল কর্তৃপক্ষ এই হাসপাতালকে ২৫০ শয্যায় উন্নীত করুক।’

সিআরবি রক্ষা, রেল কর্মচারি হাসপাতাল রক্ষা, শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের কবর রক্ষা, সর্বোপরি চট্টগ্রামের ফুসফুস সিআরবি রক্ষায় দলমত নির্বিশেষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান বক্তারা। মানব বন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন ডা. বিজয়, বজলুর রশীদ ফিরোজ প্রমুখ।

মেসবাহ য়াযাদ/সনি

সর্বশেষ