ঢাকা     শনিবার   ১৫ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ৩১ ১৪২৭ ||  ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

ড্রাগন ফল চাষে সফল পঞ্চগড়ের হিরু বর্মন

|| রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৪:১৬, ২৯ জুন ২০২০  
ড্রাগন ফল চাষে সফল পঞ্চগড়ের হিরু বর্মন

ড্রাগন ফল চাষ করে লাভবান হয়েছেন পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলার কৃষক হিরু বর্মন।

উপজেলার ধামোর ইউনিয়নের শিকটিহাড়ী গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, হিরু বর্মনের ৬৫ শতক জমির ওপর সারি সারি দাঁড়িয়ে থাকা  সিমেন্টের খুঁটি জড়িয়ে বেয়ে উঠেছে প্রায় ১৬০০ ড্রাগন গাছ। বিদেশি এ ফল গাছ থেকে প্রতিদিন ভিড় করছেন অনেকে। দূর-দূরান্ত থেকে আসছেন ব্যবসায়ীরাও। জমি থেকেই ৩০০ টাকা কেজি দরে এ ফল কিনে নিয়ে যাচ্ছেন তারা।

হিরু বর্মন জানান, তিন বছর আগে পরীক্ষামূলকভাবে ড্রাগন চাষ শুরু করেন। প্রথম বছরই সাফল্যের মুখ দেখতে পান তিনি। আর দ্বিতীয় বছরে ৬৫ শতক জমি থেকে ১২ লাখ টাকার ড্রাগন ফল বিক্রি করেন। এ বছরও ফলন ভালো হয়েছে। তবে করোনাভাইরাসের কারণে দাম নিয়ে শঙ্কায় আছেন তিনি।

হিরু বর্মন রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘দীর্ঘদিন অস্ট্রেলিয়ায় প্রবাস জীবন কাটিয়ে দেশে এসে অলস সময় পার করছিলাম। ইউটিউবে ড্রাগন চাষ সম্পর্কিত ভিডিও দেখে আগ্রহ বাড়ে। পরে খোঁজ নিয়ে জানতে পারি নাটোরে এক নার্সারিতে ড্রাগনের চারা গাছ পাওয়া যায়। সেখান থেকে চারা গাছ এনে এই বাগানটা করেছি।’
 


তিনি বলেন, ‘আমার বাগান দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে এখন অনেকেই নতুন করে ছোট বড় বাগান করছে।’

কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, পঞ্চগড়ের মাটি ড্রাগন চাষের জন্য উপযোগী হওয়ায় কৃষকেরা এ ফল চাষে ঝুঁকছেন। ইতোমধ্যে জেলায় বেশ কয়েকটি বাগান গড়ে উঠেছে।

উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, কৃষি অফিস থেকে হিরু বর্মনকে সবসময় ড্রাগন চাষে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করা হচ্ছে।

পঞ্চগড় জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক আব্দুল মতিন বলেন, ‘কৃষকের আয় বৃদ্ধি ও পুষ্টির চাহিদা পূরণে ড্রাগন চাষে উদ্বুদ্ধকরণ, মাঠ পর্যায়ে তদারকি এবং এর চাষ পদ্ধতি সম্পর্কে অবহিত করার ফলে জেলার অনেক কৃষক ড্রাগন চাষ করছেন।’

 

পঞ্চগড়/নাঈম/ইভা

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়