Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ২৩ এপ্রিল ২০২১ ||  বৈশাখ ১০ ১৪২৮ ||  ০৯ রমজান ১৪৪২

উদ্বোধনের অপেক্ষায় বঙ্গবন্ধুর তিনটি ভাস্কর্য

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:০৩, ৭ মার্চ ২০২১   আপডেট: ১৪:০৩, ৭ মার্চ ২০২১
উদ্বোধনের অপেক্ষায় বঙ্গবন্ধুর তিনটি ভাস্কর্য

উদ্বোধনের অপেক্ষায় কুষ্টিয়া শহরের পাঁচ রাস্তার মোড়ে নির্মিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের তিনটি ভাস্কর্য।

পশ্চিম দিকেরটি ঐতিহাসিক ৭ মার্চ স্মরণে, পূর্ব দিকেরটি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন এবং উত্তর দিকেরটি ছয় দফা আন্দোলন স্মরণে নির্মাণ করা হয়েছে। 

৩০ লাখ টাকা ব্যয়ে শহরের ব্যস্ততম মোড়ে বঙ্গবন্ধুর এ তিনটি দৃষ্টিনন্দন ভাস্কর্য স্থাপন করেছে কুষ্টিয়া পৌরসভা। প্রতিদিন প্রায় কয়েক লাখ মানুষ চলাচল করে এ মোড় দিয়ে।

কুষ্টিয়া পৌরসভা সূত্রে জানা যায়, গত নভেম্বর মাসের শুরুতে কুষ্টিয়া পৌরসভা কর্তৃপক্ষ ৩০ লাখ টাকা ব্যয়ে শহরের পাঁচ রাস্তার মোড়ের শাপলার ভাস্কর্য ভেঙে সেখানে জাতীয় চার নেতার মুর‌্যালের ওপরে বঙ্গবন্ধুর তিনটি ভাস্কর্য নির্মাণ কাজ শুরু করে। এরই মধ্যে তিনটি ভাস্কর্য তৈরির কাজ শেষ হয়েছে।

ভাস্কর জামাল মাহাবুব বলেন, কুষ্টিয়ার পাঁচ রাস্তা মোড়ে বঙ্গবন্ধুর তিনটি ভাস্কর্য নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। এর মধ্যে ঐতিহাসিক ৭ মার্চের স্মরণে গড়া ভাস্কর্যটির হাত ও তর্জনী এবং মুখের অংশ ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। পুনরায় সেটি মেরামত করা কঠিন কাজ ছিল, কিন্তু সেটি চারদিনে মেরামত করতে পেরেছি।

তিনি বলেন, ভাস্কর্যের নিচের অংশের জাতীয় চার নেতার ম্যুরালও তৈরি করা হয়ে গেছে। কুষ্টিয়া শহরের ব্যস্ততম এ মোড়ে ভাস্কর্যটি যেন সাধারণ মানুষকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে চলতে প্রেরণা যোগায়।

কুষ্টিয়া শহরের পাশের হরিপুরের বাসিন্দা সুমন বলেন, পাঁচ রাস্তা মোড়ে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের দিকে তাকালে বঙ্গবন্ধুর বীরত্বের কথা মনে জাগে। মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের বীরত্বের কথা, ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের কথা মনে হয়। শহরের লাখো পথচারী একটা বারের জন্য হলেও পাঁচ রাস্তার মোড়ে ভাস্কর্যের মাধ্যমে যেন বঙ্গবন্ধুকে দেখতে পায়।

কুষ্টিয়া শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান আতা বলেন, স্বাধীনতার পক্ষের জনগণ তাদের সন্তানদের দেখিয়ে বলবে যে, দেশের মানুষের মুক্তির জন্য বঙ্গবন্ধুর অবদান কী ছিল।

কুষ্টিয়া পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম জানান, পাঁচ রাস্তার মোড়ের বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের সব কাজ শেষ হয়েছে। আমরা আগামী ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবসে এ ভাস্কর্য উদ্বোধনের জন্য প্রধানমন্ত্রী বরাবর আবেদন করেছি।

২০২০ সালের ১৭ নভেম্বর এ ভাস্কর্য তৈরির কাজ শুরু হয়। এর মধ্যে ৫ ডিসেম্বর রাতে ঐতিহাসিক ৭ মার্চের স্মরণে গড়া বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যটির হাত এবং মুখের কিছু অংশ ভাঙচুর করে দুর্বৃত্তরা।

কাঞ্চন কুমার/টিপু

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়