ঢাকা     শুক্রবার   ২১ জানুয়ারি ২০২২ ||  মাঘ ৭ ১৪২৮ ||  ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

এক পরিবারে ৫ প্রার্থী 

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:২৫, ২৭ নভেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৪:২৯, ২৭ নভেম্বর ২০২১
এক পরিবারে ৫ প্রার্থী 

লক্ষ্মীপুর পৌরসভা, রায়পুর এবং রামগঞ্জ উপজেলায় বইছে নির্বাচনী হাওয়া। এর মধ্যে রায়পুর উপজেলার ৮নং দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন ঘিরে বাড়তি কৌতূহল তৈরি হয়েছে। কারণ এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান, মেম্বার পদে একই পরিবারের ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

চেয়ারম্যান পদে আবদুর রশীদ মোল্লা, সদস্য পদে তার দুই ছেলে এবং সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে তার দুই মেয়ে নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন। এর মধ্যে দুই ভাই একই ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। চলছে তাদের প্রতিযোগিতামূলক প্রচারণা। যদিও বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় রশিদ মোল্লাকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, রশিদ মোল্লার ছেলে জাকির হোসেন মোল্লা ফুটবল প্রতীকে, দিদার হোসেন মোল্লা ঘুড়ি প্রতীক নিয়ে ৪ নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মেয়ে তাহমিনা আক্তার ঝর্ণা সংরক্ষিত ১, ২, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে এবং জোসনা বেগম সংরক্ষিত ৭, ৮, ৯ নম্বর ওয়ার্ডের নির্বাচনী মাঠে রয়েছেন। দুজনের প্রতীক মাইক।

এ ছাড়াও ৪ নম্বর ওয়ার্ডে রশিদ মোল্লার ভাতিজা আবু সুফিয়ান মোল্লা মোরগ প্রতীক নিয়ে সদস্য পদে নির্বাচন করছেন।

স্থানীয়রা জানান, যেহেতু রশিদ মোল্লাসহ তার পরিবারের সবাই নির্বাচনী মাঠে রয়েছেন ফলে ভোট শেষে গণনা পর্যন্ত তারা আলোচনায় থাকবেন। সাধারণ ভোটাররা তাদের নির্বাচনী প্রচারণা দারুণ উপভোগ করছেন। 

জাকির হোসেন মোল্লা বলেন, জনগণ আমার পাশে আছে। মাঠে সাড়াও পাচ্ছি। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আমিই মেম্বার নির্বাচিত হবো। ভাই দিদার হোসেন মোল্লাও সমান আত্মবিশ্বাসী। তার ভাষ্য, ভোট দেওয়ার মালিক জনগণ। তাদের পরামর্শেই আমি নির্বাচন করছি। শেষ পর্যন্ত লড়াই করতে চাই।  

এ প্রসঙ্গে চেয়ারম্যানপ্রার্থী আবদুর রশিদ মোল্লা বলেন, দলের জন্য আমাদের পরিবারের ত্যাগ রয়েছে। কিন্তু দল আমাকে মূল্যায়ন না করে জনবিচ্ছিন্ন প্রার্থী মনোনীত করেছে। কিন্তু জনগণের সাড়া পেয়েই আমি ভোটের মাঠে নেমেছি।

ছেলেমেয়েরাও নির্বাচন করছে। তাদের এই উদ্যোগ সমর্থন করে রশিদ মোল্লা বলেন, জনগণের সেবার জন্য তারা ভোটের মাঠে নেমেছে। জনপ্রতিনিধি হিসেবে নিজেদের প্রমাণিত করে তারা জনগণের সেবা করতে চায়। নির্বাচন হলো এর অন্যতম মাধ্যম।

আগামীকাল (২৮ নভেম্বর) জেলার ২০টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে লক্ষ্মীপুর পৌরসভা ও রামগঞ্জের ২টি ইউনিয়নে ইভিএম এবং বাকি ১৮টি ইউনিয়নে ব্যালট পেপারে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলবে। 
 

জাহাঙ্গীর লিটন/তারা 

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়