ঢাকা     শনিবার   ২৮ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪২৯ ||  ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩

মাগুরায় ১৪ জন ইউপি চেয়ারম্যানের শপথ গ্রহণ

মাগুরা প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:১১, ১৩ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১২:২৩, ১৪ জানুয়ারি ২০২২
মাগুরায় ১৪ জন ইউপি চেয়ারম্যানের শপথ গ্রহণ

মহম্মদপুর উপজেলার আট ইউপির ৭ টি ও শালিখার সাতটির ৭ জন মোট ১৪ জন নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান শপথ নিয়েছেন।

আজ বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) বিকেলে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে মহম্মদপুর উপজেলার সাতজন ও শালিখা উপজেলার সাতজন চেয়ারম্যান শপথ নিতে আসেন।

অনুষ্ঠানিকভাবে শপথ বাক্য পাঠ করান জেলা প্রশাসক ড. আশরাফুল আলম। শপথের পর জেলা প্রশাসক চেয়ারম্যানদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘শপথ বাক্যের প্রতিটি কথা আপনাকে মেনে চলতে হবে। আপনাদের বিচার করার ক্ষমতা দেওয়া আছে। কখনও মান-অভিমান, অনুরাগ-বিরাগভাজন হয়ে ক্ষমতার অপব্যবহার করবেন না। দেশের ক্ষতি হয় এমন কাজ করবেন না। গ্রাম আদালত পরিচালনা, ওয়ারিশ সনদ ও নাগরিক সনদ দেওয়ার ক্ষেত্রে অব্যশই সতর্কতার সঙ্গে কাজ করবেন।’

জেলা প্রশাসক বলেন, ‘আপনি ইউনিয়নের সাধারণ মানুষের আশা ও প্রত্যাশার ভরসাস্থল। আপনি জনগণের ভোটে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি। কে আপনাকে ভোট দিয়েছেন, আর কে দেননি— সেটা মূল বিষয় নয়; আপনি সবার চেয়ারম্যান। সবাইকে আপন করে নেবেন। আপনাদের কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে ইউনিয়নে উন্নয়ন সম্ভব।’

এ শপথ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জেলা নির্বাচন অফিসার ওলিউল ইসলাম, মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট শ্রী বীরেন শিকদার, জেলা পুলিশ সুপার জহিরুল ইসলাম, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পঙ্কজ কুন্ড, মহম্মদপুর উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আব্দুলাহেল কাফি প্রমুখ।

এদিকে, মহম্মদপুর উপজেলার বাবুখালী ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মীর মো. সাজ্জাদ আলী শপথ নিতে পারেননি। উচ্চ আদালতে মামলা থাকায় তাকে শপথ পড়ানো সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

বাবুখালী ইউপির চেয়ারম্যান মীর মো. সাজ্জাদ আলী বলেন, নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান হিসেবে তার নামে নতুন গেজেট প্রকাশ হয়েছে। শপথ নেয়ার জন্য নির্দিষ্ট সময়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে পৌঁছানোর ফোনও পান। এরপর শুভাকাঙ্ক্ষীদের নিয়ে নির্দিষ্ট সময়ে শপথ অনুষ্ঠানে আসেন। কিন্তু তিনি শপথ নিতে পারেননি। তাকে ফিরে যেতে হয়েছে।

শপথ অনুষ্ঠানের শুরুতে অনুষ্ঠানের সভাপতি মাগুরা জেলা প্রশাসক ড. আশরাফুল আলম বলেন, ‘হাইকোর্ট বিভাগে যে রিট হয়েছে, রিটের যে অর্ডার আমরা দেখেছি; তাতে আপতত সিদ্ধান্ত নিয়েছি বাবুখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের শপথ এখন হবে না। কোর্টের নির্দেশনা পাওয়ার পর আমরা সিদ্ধান্ত নেব। নির্বাচন কমিশনও আমাদের এমন নির্দেশনা দিয়েছে।’

তৃতীয় ধাপে গত ২৮ নভেম্বর মহম্মদপুর ও শালিখা উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। 

শাহীন/মাগুরা

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়