ঢাকা     সোমবার   ০৪ জুলাই ২০২২ ||  আষাঢ় ২০ ১৪২৯ ||  ০৪ জিলহজ ১৪৪৩

সরাইলে আ.লীগ এমপিকে ‘রাজাকার পুত্রবধূ’ আখ্যা দিয়ে অনুষ্ঠান বর্জন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০১:৪৪, ১৩ মে ২০২২  
সরাইলে আ.লীগ এমপিকে ‘রাজাকার পুত্রবধূ’ আখ্যা দিয়ে অনুষ্ঠান বর্জন

নারী সাংসদ শিউলী আজাদ ও উপজেলা চেয়ারম্যান রফিক উদ্দিন ঠাকুর

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে আওয়ামী লীগের সংরক্ষিত আসনের (৩১২) নারী সাংসদ শিউলী আজাদকে ‘রাজাকার পুত্রবধূ’ আখ্যা দিয়ে ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বর্জন করেছেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রফিক উদ্দিন ঠাকুর ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রোকেয়া বেগম।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) বিকেলে উপজেলা সদরের কুট্টাপাড়া শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে এ খেলার আয়োজন করা হয়।

উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়েছে উপজেলার নয়টি ইউনিয়ন দলের মধ্যকার ‘বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট’। প্রথম পর্বের অনূর্ধ্ব-১৭ বালক দলের খেলার উদ্বোধন করেন সংরক্ষিত নারী আসনের (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) এমপি ও উপজেলা আ.লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক উম্মে ফাতেমা নাজমা বেগম শিউলী আজাদ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দায়িত্বে থাকা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফাহানা নাসরিন। 

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার কথা ছিল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ.লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রফিক উদ্দিন ঠাকুর, ভাইস চেয়ারম্যান আবু হানিফ, মহিলা ভাই চেয়ারম্যান ও উপজেলা মহিলা আ.লীগের সভাপতি রোকেয়া বেগম ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার আনোয়ার হোসেনের। তবে তারা কেউ-ই অনুষ্ঠানে যোগ দেননি।

এ বিষয়ে রফিক ঠাকুর, রোকেয়া বেগম ও আনোয়ার হোসেন বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে একজন ‘রাজাকার পুত্রবধূকে’ প্রধান অতিথি করা হয়েছে। এজন্য আমরা অনুষ্ঠান বর্জন করেছি। তিনি যেসব অনুষ্ঠানে যাবেন, আমরা সেখানে যাব না। তবে আবু হানিফ বলেন, আমি ব্যক্তিগত সমস্যার কারণে খেলায় যেতে পারিনি। এখানে অন্য কোনো কারণ নেই।

আর সাংসদ শিউলী আজাদ বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। আমি শুনেছি তারা বৃষ্টির কারণে আসতে পারেননি। তাকে রাজাকার পুত্রবধূ বলা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আপনার (তাদের) মুখ আছে, আপনি (তারা) কত কথাই বলতে পারেন।

প্রসঙ্গত, ১০ বছর আগে দলীয় কোন্দলে উপজেলা সদরে খুন হন শিউলী আজাদের স্বামী উপজেলা আ.লীগের জ্যেষ্ঠ সহ সভাপতি একেএম ইকবাল আজাদ। ওই হত্যা মামলায় আসামি করা হয়েছে তৎকালীন উপজেলা আ.লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হালিম (প্রয়াত), রফিক উদ্দিন ঠাকুর, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডার, ডেপুটি কমান্ডার, উপজেলা যুবলীগ ও ছাত্রলীগের ২৯ নেতা কর্মীকে। এ ঘটনার পর থেকে উপজেলা আ.লীগে হ-য-ব-র-ল অবস্থা বিরাজ করছে। গত ৮ বছর ধরে উপজেলা আ.লীগ চলছে আহ্বায়ক কমিটি দিয়ে। এমনকি দলীয় কর্মকাণ্ডেও স্থবিরতা দেখা দিয়েছে।

মাইনুদ্দীন রুবেল/এনএইচ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়