ঢাকা     রোববার   ২১ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ৬ ১৪৩১

নীলফামারীতে নৌকার মাঝি হতে চান ৩৫ জন

নীলফামারী প্রতিনিধি  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:১৩, ২৪ নভেম্বর ২০২৩  
নীলফামারীতে নৌকার মাঝি হতে চান ৩৫ জন

এবারও নীলফামারী-২ আসনে নৌকার প্রার্থী হতে চান সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আসাদুজ্জামান নূর

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নীলফামারীর চারটি সংসদীয় আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন ৩৫ জন। তারা এমপি হতে কেন্দ্রের নীতি-নির্ধারকদের দ্বারে দ্বারে দৌড়ঝাঁপ করছেন। মনোনয়ন প্রত্যাশীর মধ্যে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের সাবেক-বর্তমান নেতা, সাবেক-বর্তমান সংসদ সদস্য, আইনজীবী রয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নীলফামারী-১ (ডোমার-ডিমলা) থেকে ১১ জন, নীলফামারী-২ (সদর উপজেলা) থেকে ৪ জন, নীলফামারী-৩ (জলঢাকা) থেকে ১২ জন এবং নীলফামারী-৪ (সৈয়দপুর-কিশোরগঞ্জ) আসন থেকে ৮ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন।

ডোমার ও ডিমলা উপজেলা নিয়ে গঠিত নীলফামারী-১ আসন। এ আসনে বর্তমান এমপি আফতাব উদ্দীন সরকার ছাড়াও এই আসন থেকে দলের মনোনয়নপত্র নিয়েছেন আরও ১০ জন। সবাই এগিয়ে আছেন সমানতালে। আসনটি গত দুই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দখলে ছিল। এবারও নিজেদের দখলে রাখতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ বর্তমান এমপি ডিমলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আফতাব উদ্দিন সরকার।

তিনি ছাড়াও এ আসনে দলের মনোনয়নপত্র নিয়েছেন, ডোমার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সুপ্রিম কোর্টের সাবেক ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অ্যাডভোকেট মো. মনোয়ার হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল হক চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহশিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক সরকার ফারহানা আক্তার সুমি, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খায়রুল আলম বাবুল, সাবেক রাষ্ট্রদূত আমিনুল ইসলাম সরকার, ব্যারিস্টার ইমরান কবির চৌধুরী জনি, ডিমলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক সরকার মিন্টু, ডিমলা উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য ও পশ্চিম ছাতনাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল হক সরকার, ডিমলা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান তবিবুল হক ও মৎস্যজীবী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যনির্বাহী সদস্য মঞ্জুর আলম নাহিদ।

জেলার সদর উপজেলা নিয়ে গঠিত নীলফামারী-২ আসন। আসন্ন দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন ঘিরে এ আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নুর ছাড়াও দলের আরও তিন জন মনোনয়ন নিয়েছেন। তারাও প্রচার চালাচ্ছেন নিজেদের পক্ষে। জেলার গুরুত্বপূর্ণ এ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগের আসাদুজ্জামান নূর।

সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আসাদুজ্জামান নূর এলাকার মানুষের ভাগ্যোন্নয়নের জন্য কাজ করেছেন। যার সুফল নির্বাচনী এলাকার বাইরের জনগণও পাচ্ছেন। দৃশ্যমান উন্নয়নের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ইপিজেড নির্মাণ, নীলফামারী সরকারি কলেজে অনার্স কোর্স চালু, নীলফামারী মেডিকেল কলেজ স্থাপন, আধুনিক শেখ কামাল স্টেডিয়াম, বহুতল ভবনবিশিষ্ট নীলফামারী জেনারেল হাসপাতাল, সৈয়দপুর-ডোমার আঞ্চলিক মহাসড়ক উল্লেখযোগ্য। এ ছাড়া নিজস্ব উদ্যোগে করা বিভিন্ন জনহিতকর কাজ আরও গ্রহণযোগ্য করে তুলেছে নূরকে। এসব কাজের পরিপ্রেক্ষিতে বিগত নির্বাচনের মতো দলীয় নেতা-কর্মীসহ সাধারণ ভোটাররা মনে করেন, এই আসনে সংসদ সদস্য হিসেবে নূরেই ভরসা। তাই টানা চারবারের এমপি আসাদুজ্জামান নূর এ আসনে বিকল্পহীন।

এরপরেও আসাদুজ্জামান নূর ছাড়াও এ আসনে দলের মনোনয়নপত্র নিয়েছেন, জেলা আওয়ামীলীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক মশিউর রহমান, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি ইয়াহিয়া আবিদ ও মৎস্যজীবী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি এস এম নুর আলম সিদ্দিকী।

জলঢাকা উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন এবং একটি পৌরসভা নিয়ে নীলফামারী-৩ আসন। বিগত ১১ নির্বাচনের বিশ্লেষণে দেখা গেছে, এককভাবে নির্বাচন করে আওয়ামী লীগের প্রার্থী প্রথম, পঞ্চম এবং দশম সংসদ নির্বাচনে জয়ী হন। মহাজোটের অংশ হিসেবে নবম ও একাদশে নির্বাচিত হন জাপার প্রার্থী। চতুর্থ সংসদ নির্বাচনে জাপা, ষষ্ঠ সংসদ নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী নির্বাচিত হয়। জামায়াত তৃতীয়, সপ্তম ও অষ্টম সংসদ নির্বাচনে আসনটি দখল করে।

এবার আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন কিনেছেন ২০১৪ সালের নির্বাচনে জয়ী ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা। আশির দশকে ছাত্ররাজনীতিতে তিনি রংপুর কারমাইকেল কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন। এছাড়াও আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজও মনোনয়নপত্র কিনেছেন। যুদ্ধাপরাধীর বিচারপ্রক্রিয়ায় মেধা খাটিয়ে দেশ-বিদেশে বেশ খ্যাতি এবং পরিচিতি অর্জন করেছেন তিনি। পেশাগত কর্মব্যস্ততার মধ্যেও প্রায়ই ছুটে আসেন নিজ উপজেলার মানুষের কাছে।

এই দুইজন ছাড়াও এ আসনে মনোনয়নপত্র কিনেছেন আরও ১০ জন। এর মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমুদ্রবিজ্ঞান বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক উপ-কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য অধ্যাপক ড. জোবায়ের আলম। দলীয় পরিচয়ের বাইরে তিনি একজন মিডিয়া ব্যক্তিত্ব এবং নিবেদিত সমাজসেবী। যেকোনো জাতীয় দুর্যোগের সময় তিনি ছুটে গেছেন সেসকল দুর্যোগপীড়িত অসহায় মানষের কাছে। সাধ্যানুযায়ী তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। নিজ এলাকা নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলাতেও রয়েছে সরব উপস্থিতি। দলমত নির্বিশেষে যেকোনো সংকটে সদা-সবর্দা এই এলাকার মানুষের পাশে দাঁড়ান। একজন শিক্ষিত তরুণ হিসেবে নিজ এলাকার পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে শিক্ষার আলো আলোকিত করতে ছাত্রাবস্থা থেকেই নিয়েছেন বিভিন্ন উদ্যোগ।

এছাড়াও জলঢাকা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ শামীম, সিনিয়র সহ-সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর, সহ সভাপিত অধ্যক্ষ একে আজাদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি আনছার আলী মিন্টু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক শহীদ হোসেন রুবেল, যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন পাভেল, বাংলাদেশ কোল্ডস্টোরেজ এসোসিয়েশনের সভাপতি ও এফবিসিসিআইয়ের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মোস্তফা আজাদ চৌধুরী বাবু, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সদস্য ববিতা রানী সরকার ও জলঢাকা পৌর মেয়র ইলিয়াস হোসেন বাবলু দলের মনোনয়ন ফরম কিনেছেন।

নীলফামারী-৪ আসনটি সৈয়দপুর ও কিশোরগঞ্জ উপজেলা নিয়ে গঠিত। এ আসনে ৮ জন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছেন। তারা হলেন, সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোখছেদুল মোমিন। তিনি ছাড়াও কিশোরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাকির হোসেন বাবুল, সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মহসিনুল হক মহসিন, কেন্দ্রীয় উপকমিটির সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক মোশাররফ হোসেন, কেন্দ্রের প্রচার ও প্রকাশনা উপকমিটির সদস্য আমেনা কোহিনুর, কিশোরগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ মো. আবুল কালাম বারী, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার মোকছেদুল ইসলাম ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক নাফিউল করিম নাফা।

নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ৩০ নভেম্বর, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই হবে ১ থেকে ৪ ডিসেম্বর, মনোনয়ন আপিল ও নিষ্পত্তি ৬ থেকে ১৫ ডিসেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৭ ডিসেম্বর, প্রতীক বরাদ্দ ১৮ ডিসেম্বর, নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা ১৮ ডিসেম্বর থেকে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত এবং ভোটগ্রহণ ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে।
 

সিথুন/বকুল

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়