ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ১৮ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৫ ১৪৩১

কুমিল্লায় নারী ভোটার টানতে নির্বাচনের মাঠে প্রার্থীদের স্ত্রী-কন্যা

কুমিল্লা প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:০৫, ২ জানুয়ারি ২০২৪   আপডেট: ১৮:২০, ২ জানুয়ারি ২০২৪
কুমিল্লায় নারী ভোটার টানতে নির্বাচনের মাঠে প্রার্থীদের স্ত্রী-কন্যা

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আর মাত্র ৪ দিন বাকি। নির্বাচনে কুমিল্লার বেশ কয়েকটি আসনে নারী ভোটারদের পক্ষে টানতে মাঠে নেমেছেন প্রার্থীদের স্ত্রী ও কন্যরা। এছাড়া, নারী কর্মীরাও প্রার্থীদের পক্ষে চালাচ্ছেন জোর প্রচারণা। তারা ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়ে নিজ প্রার্থীকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছেন। নেতাকর্মীদের সঙ্গে সভা-সমাবেশেও অংশ নিতে দেখা যাচ্ছে তাদের। কুমিল্লার জেলায় নারী ভোটার রয়েছেন ২২ লাখ ৩৫ হাজার ৭৯৮ জন। 

নারী ভোটাররা জানিয়েছেন, প্রার্থীদের পক্ষে তাদের স্বজনরা নির্বাচনি ইশতেহার তুলে ধরছেন। ভোটে জিতলে নারীদের উন্নয়নে প্রার্থীরা কি কি কাজ করবেন এসব বুঝাচ্ছেন। বিষয়টি ইতিবাচক হিসেবে নিয়ে এই ভোটাররা জানিয়েছেন, বিজয়ী হয়েও যেন প্রার্থীরা ভোটারদের কাছে আসেন। সুবিধা-অসুবিধা জেনে উদ্যোগ নেন।

কুমিল্লা-২ (হোমনা -মেঘনা) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আবদুল মজিদের পক্ষে নির্বাচনি প্রচারণায় নেমেছেন তার দুই কন্যা ব্যারিস্টার রোমিন তামান্না হ্যাপি ও নাহরিন ফারহানা পপি। প্রতীক বরাদ্দের পর থেকে হোমনা ও মেঘনার বিভিন্ন গ্রামে গ্রামে ভোটারদের কাছে বাবার জন্য ভোট চাচ্ছেন তারা।

নাহরিন ফারহানা পপি বলেন, আমার বাবা একজন ক্লিন ইমেজের মানুষ,তিনি সবসময় মানুষের জন্য কাজ করেছেন,এ এলাকায় অনেক শিক্ষা  প্রতিষ্ঠান নিজ উদ্যোগে করেছেন তিনি। জনগণ এবার আমার বাবাকে ভোট দিবে।

কুমিল্লা-৪ (দেবিদ্বার) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক উপজেলা চেয়রাম্যান আবুল কালাম আজাদের স্ত্রী সাদিয়া সাবা স্বামী জন্য দিনরাত প্রচারণা চালাচ্ছেন। স্বামী নির্বাচিত হলে নারীদের নিয়ে উন্নয়নমূলক কাজ করার অঙ্গীকার করছেন তিনি। 

সাদিয়া সাবা বলেন, দেবিদ্বারে ঈগল প্রতীকের গণজোয়ার দেখা যাচ্ছে, আমরা সব সময় এ এলাকায় মানুষের জন্য কাজ করেছি। ৭ তারিখ জনগণ আমার স্বামীকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবেন।

কুমিল্লা-৫ (বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী অ্যাডভোকেট আবুল হাসেম খানের কন্যা নাদিয়া হাসেম তানজি দিনরাত বাবার পক্ষে প্রচার প্রচারণা ও উঠান বৈঠক করছেন। নারী ভোটারদের টানতে বাড়ি বাড়ি বৈঠক করছেন তিনি।

নাদিয়া হাসেম তানজি বলেন,আমার বাবা উপ-নিবাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয় লাভ করেছেন। তিনি গত এক বছর ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। তাই এবারও  মানুষ আমার বাবাকে ভোট দেবেন। 

কুমিল্লা-৬ (সদর-সেনানিবাস) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হাজী আ.ক.ম বাহাউদ্দিন বাহারের দুই কন্যা তাহসান বাহার সূচি নারী ভোটারদের কাছে টানতে উঠান বৈঠক করছেন। দিনরাত নারী ভোটারদের ঘরে ঘরে যাচ্ছেন তিনি। 

কুমিল্লা- ১০ (সদর দক্ষিণ, নাঙ্গলকোট ও লালমাই) আসনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী লোটাস কামালের কন্যা নাফিসা কামাল কয়েকদিন ধরে তার বাবার জন্য গ্রামে গ্রাম গণসংযোগ করছেন। করছেন উঠান বৈঠক। ভোট কেন্দ্রে নারী ভোটারদের আনতে দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। 

লাফিসা কামাল বলেন,এ আসনের মানুষ সবসময় আমার বাবার প্রতি আস্থা রেখেছে,এবার নৌকার জয় হবে।

এই আসনের ভোটার সাদিয়া ইসলাম বলেন, নারীবান্ধব প্রার্থীকে ভোট দিতে চাই। যাতে নারীরা আরও এগিয়ে যেতে পারেন।

কুমিল্লা- ১১ (চৌদ্দগ্রাম) আসনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের মুজিবুল হকের মুজিবের স্ত্রী হনুফা আরা আক্তার ভোটারদের কাছে যাচ্ছেন তার স্বামীর জন্য ভোট চাইতে। স্বামীর করা বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের তথ্য তিনি নারী ভোটারদের কাছে তুলে ধরেছেন। চাচ্ছেন ভোট। 

ভোটার ফাহমিদা আক্তার সাথী বলেন, প্রার্থীদের পক্ষে প্রতিদিন অনেক নারী কর্মী বাসায় আসছেন। তারা আমাদের কাছে নিজেদের প্রার্থীদের বিভিন্ন নির্বাচনি অঙ্গীকার তুলে ধরছেন। 

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লার ১১টি সংসদীয় আসনে ৯১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নির্বাচন অফিসের চূড়ান্ত তালিকা অনুযায়ী, এবার জেলায় পুরুষ ভোটার ২৩ লাখ ৫১ হাজার ৭২৭ জন এবং নারী ভোটার ২২ লাখ ৩৫ হাজার ৭৯৮ জন।

রুবেল/মাসুদ

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়