ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৬ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ১ ১৪৩১

বগুড়ায় জামাতার হাতে শাশুড়ি খুন

বগুড়া প্রতিনিধি  || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:৫৮, ১১ জুলাই ২০২৪   আপডেট: ১২:৩৩, ১১ জুলাই ২০২৪
বগুড়ায় জামাতার হাতে শাশুড়ি খুন

বগুড়ার আদমদীঘিতে ঝগড়া থামাতে গিয়ে জামাতার হাতে জোবেদা বেওয়া (৫৫) নামে এক নারী খুন হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার (১০ জুলাই) দুপুর দেড়টার দিকে উপজেলার চাপাপুর ইউনিয়নের মিতেইল পূর্বপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত জোবেদা ওই গ্রামের মৃত ছোলেমান আলীর স্ত্রী। পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে।

স্থানীয়রা জানান, বিধবা জোবেদা আড়াই বছর আগে তার একমাত্র মেয়ে সালেহাকে একই গ্রামের সেলিম হোসেনের ছেলে রাসেল আহমেদের সাথে বিয়ে দিয়ে তাকে ঘর জামাই রাখেন। বিয়ের পর থেকে রাসেল বিভিন্ন সময় নানা কারণে তার স্ত্রী সালেহা ও শাশুড়ি জোবেদা বেওয়াকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছিলেন। বুধবার সকালে রাসেল তার স্ত্রীকে নিয়ে চিকিৎসার জন্য স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যায়। চিকিৎসা শেষে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন স্ত্রীকে। এরপর রাসেল গাছ কাটার জন্য শ্রমিক হিসেবে অন্য গ্রামে যান। পরে দুপুরে খাবার খেতে যান জামাই রাসেল। খাবার হতে দেরি হওয়ায় স্ত্রীকে মারধর করেন তিনি। এ সময় শাশুড়ি বাধা দিতে গেলে এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রাসেল তার শাশুড়ির গলায় লোহার ধারালো বেড়ি ঢুকিয়ে দেয়। শ্বাসনালীতে বেড়ি আটকে গিয়ে গুরুতর আহত হন জোবেদা। পরে আহত জোবেদাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য নিটকবর্তী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান স্থানীয় লোকজন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

নিহতের মেয়ে সালেহা বলেন, আমি অসুস্থ থাকার কারণে অন্য নারীর সংস্পর্শে থাকার চেষ্টা করেন আমার স্বামী রাসেল। কয়েকদিন আগেই এক নারীকে উত্যক্ত করার ঘটনায় তাকে নিয়ে সালিশ হয়। এসব নিয়ে কথা বললেই রাসেল আমাকে নির্যাতন করতেন। এছাড়াও নানা কারণে আমাকে নির্যাতন করা হয়। রাসেল আমার মাকে হত্যা করে আমাকেও লাঠি দিয়ে মারপিট করেন। 

বিষয়টি নিশ্চিত করে আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাজেশ চক্রবর্তী বলেন, এ ঘটনায় নিহতের ভাই তবিবর রহমান বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনার সাথে জড়িত রাসেলকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এনাম/ইমন

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ