ঢাকা     শনিবার   ২০ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ৫ ১৪৩১

‘অবিশ্বাস্য’ কামব্যাকে ক্রোয়েটদের কাঁদিয়ে শেষ ষোলোতে ইতালি

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৩:০৪, ২৫ জুন ২০২৪   আপডেট: ০৪:২১, ২৫ জুন ২০২৪
‘অবিশ্বাস্য’ কামব্যাকে ক্রোয়েটদের কাঁদিয়ে শেষ ষোলোতে ইতালি

মাঝ মাঠের একটু সামনে বল পান রিকার্দো ক্যালিফোরি। সর্ব শক্তি নিয়ে দৌড়ে বল নিজের নিয়ন্ত্রণে রেখে দারুণ ড্রিবলিংয়ে বল ঠেলে ক্রোয়েশিয়া ডি বক্সের ডান দিকে। এক প্রকার দৌড়ে এসে বুলেট গতির কোনাকুনি শটে বল জালে জড়ান মাত্তিয়া জাচাগনি।

ইনজুরি সময়ের অষ্টম মিনিটে গোল হজম করে মাথায় যেন আকাশ ভেঙে পড়ে ক্রোয়েটদের। ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের শেষ ষোলোর যাত্রা থামিয়ে নিজেদের নাম অঙ্কিত করা থেকে মাত্র কয়েক মিনিটের দূরত্ব। ভাগ্য বিধাতা এদিন দুহাত ভরে দিয়েছে আজ্জুরিদের। তাইতো রেড বুল অ্যারেনায় নিশ্চিত বাদ পড়া থেকে ১-১ গোলে ড্র করেছে ইতালি।

লুকা মডরিচ নিজেকে দুষতে পারেন ভীষণভাবে। আক্ষেপের অনলে পুড়ে ছারখার হতে পারেন। এমন ম্যাচে পেনালটি মিস করেছেন, ৫৪ মিনিটে গোলরক্ষকের বাঁ দিকে মাটি ঘেষা শট নিয়েছেন, বিচক্ষণ ডোনারুম্মা আঁচ করতে পেরে ঝাঁপিয়ে পড়ে রুখে দেন।

পেনালটি মিসের এক মিনিট পরই খল নায়ক থেকে নায়ক বনে যান মডরিচ। ভুদিমির শট বা দিকে ঝাঁপিয়ে পরে রুখে দেন ডোনারুম্মা। তবে বল নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেননি, বাঁ দিকে গড়িয়ে আসে মডরিচের মুখের সামনে। জোরালো শটে লক্ষ্যভেদ করেন ইতালির জাল।

এমন গোলের পর জয়ের পথেই ছিল ক্রোয়েটরা। বারবার ইতিয়ালির আক্রমণ ব্যর্থ হচ্ছিল ক্রোয়েট ডিফেন্সের বাধায়। মডরিচদের কান্নার কারণ হয়ে ত্রাতা হয়ে আসেন জাচাগনি।

সব মিলিয়ে ষোলোটি শট নেয় ইতালি, ক্রোয়েশিয়ার আক্রমণ প্রায় অর্ধেক ১০টি। ৫৪ শতাংস সময় নিজেদের পায়ে রেখে  বল দখলের লড়াইয়েও ইতালি এগিয়ে ছিল।

৩৮ বছর ২৮৯ দিনে গোল দিয়ে সবচেয়ে বেশি বয়সী ফুটবলার হিসেবে কীর্তি গড়েন মডরিচ। দলের সবচেয়ে বড় তারকার পেনালটি মিসের দিন দ্বিতীয়বারের মতো ২০০৪ সালের পর গ্রুপপর্বে কোনো ম্যাচের জয় পায়নি ক্রোয়েশিয়া। 

ঢাকা/রিয়াদ

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়