ঢাকা, বুধবার, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

খুলনায় ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় ব্যাপক প্রস্তুতি

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১১-০৮ ৮:২৯:১৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১১-০৮ ৮:৪৩:৪৫ পিএম

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলায় খুলনা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

জেলা সদর ও নয় উপজেলায় ১০টি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। উপকূলীয় বাসিন্দাদের আশ্রয় দিতে সরকারি-বেসরকারি ৩৩৮টি সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত করা হয়েছে।

এদিকে, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে খুলনাসহ উপকূলীয় জেলাগুলোতে বৃষ্টিপাত হচ্ছে। শুক্রবার দুপুর থেকে খুলনায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত শুরু হয়।

বুলবুল ঘণ্টায় ১২৫ কিলোমিটার বেগের বাতাসের শক্তি নিয়ে ধেয়ে আসছে উপকূলের দিকে। আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, আপাতত এর গতিমুখ সুন্দরবনের দিকে। শনিবার বিকেলের পর বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় ঝড়ের প্রভাব অনুভূত হতে পারে। মধ্যরাতে খুলনা অঞ্চল দিয়ে বুলবুল উপকূল অতিক্রম করতে পারে। উপকূলীয় কয়েক জেলায় জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

খুলনা জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আজিজুল হক জোয়ার্দ্দার বলেন, বিকেলে খুলনা সার্কিট হাউজে ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলা ও সব কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানে জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরিসভা হয়েছে। উপকূলীয় দাকোপ ও কয়রা উপজেলায় বিপুল সংখ্যক স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, উপজেলা পর্যায়ে নয়টি কন্ট্রোল রুমের মাধ্যমে ঘূর্ণিঝড় সংক্রান্ত যে কোনো তথ্য দিতে এবং ক্ষতি এড়াতে তাৎক্ষণিক পদক্ষেপ নিতে স্ব স্ব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড়ের কারণে সুন্দরবনের দুবলায় রাসমেলা বন্ধ করা হয়েছে। দুপুরে মেলা উদযাপন কমিটি মেলা বন্ধের ঘোষণা দেয়। ফলে মেলার উদ্দেশে খুলনা থেকে ছেড়ে যাওয়া ছয়টি নৌযান মোংলায় আটকে যাত্রীদের ফেরত পাঠানো হয়েছে।

খুলনা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন জানান, ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় জেলার সকল সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীর ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

তিনি বলেন, স্থানীয় জেলেদের নদীতে মাছ ধরা থেকে বিরত থাকা ও চরে বসবাসকারীদের নিরাপদে সরে আসার জন্য বলা হচ্ছে। ঝুঁকিপূর্ণ উপজেলা কয়রা, পাইকগাছা, দাকোপ ও বটিয়াঘাটায় সবাইকে নিরাপদে থাকার জন্য মাইকিং করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত খুলনার সকল ট্যুর অপারেটরদের সুন্দরবনের রাসমেলার উদ্দেশে নৌযান না ছাড়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

খুলনা জেলা আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবহাওয়াবিদ আমিরুল আজাদ জানান, ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে শুক্রবার বেলা ১২টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত খুলনায় ৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। থেমে থেমে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে।


খুলনা/মুহাম্মদ নূরুজ্জামান/বকুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন