RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||  ফাল্গুন ১২ ১৪২৭ ||  ১২ রজব ১৪৪২

ঠান্ডা-কুয়াশায় দিনাজপুরে জনজীবন বিপর্যস্ত

দিনাজপুর প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:৪৭, ১৯ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৫:৩৫, ১৯ জানুয়ারি ২০২১
ঠান্ডা-কুয়াশায় দিনাজপুরে জনজীবন বিপর্যস্ত

দিনাজপুর জেলায় ঘন কুয়াশার মধ্যে হিমেল হাওয়ায় কনকনে শীতে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। দিনের বেলায়ও হেডলাইট জ্বালিয়ে যানবাহন চলাচল করছে। তীব্র শীতে কাজ না পেয়ে দিনমজুরেরা কষ্টে দিনাতিপাত করছে। 

দিনাজপুর আবহাওয়া অফিসের ইনচার্জ তোফাজ্জল হোসেন রাইজিংবিডিকে জানান, আজ মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) ভোরে জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিলো ১৩ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সকালে ছিলো ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। 

তিনি আরও জানান, গত কয়েকদিনের মধ্যে আজ (মঙ্গলবার) শীতের দাপট কিছুটা কম। শৈত্যপ্রবাহও নেই। কিন্তু ভোর থেকে ঘন কুয়াশা রয়েছে। দুপুর পর্যন্ত সুর্যের দেখা মেলেনি। 

জেলায় সকাল থেকে দেখা গেছে, ঘন কুয়াশার মধ্যে শীতে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া মানুষ ঘর থেকে বের হচ্ছে না। অনেক দিনমজুর কাজে যেতে পারেনি। ছোট-বড় সব ধরনের যানবাহন লাইট জ্বালিয়ে চলাচল করছে। স্থানীয় বাজারে অধিকাংশ দোকানপাট বন্ধ রয়েছে। গ্রামের মানুষ খড়কুটো জ্বালিয়ে এর পাশে দল বেঁধে বসে শীত নিবারণের চেষ্টা করছে। 

দিনাজপুর শহরে থেকে ছেড়ে আসা ধান বোঝায় ট্রাক চালক রবিউল হুসাইন বলেন, সকালে দিনাজপুর থেকে রওনা দিয়েছেন। ঘন কুয়াশার কারণে গাড়ি ধীরে ধীরৈ চালাতে হচ্ছে। হিলি পর্যন্ত আসতে দ্বিগুণ সময় লেগেছে। 

হিলি থেকে দিনাজপুরগামী যাত্রীবাহী বাসের চালক আজিজ রহমান বলেন, আজ শীত অনেকটা কম কিন্তু কুয়াশা খুব বেশি। দ্রুত গাড়ি চালানো যাচ্ছে না। দিনেরও লাইট জ্বালিয়ে চলতে হচ্ছে। 

হিলি চারমাথায় নিজের ভ্যানে বসে থাকা আফজাল হোসেন বলেন, প্রতিদিন ভোরে ভ্যান নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন তিনি। গত কয়েক দিন কুয়াশা আর ঠান্ডায় বের হতে পারেননি। আজ বের হয়েও বসে আছেন। রাস্তায় যাত্রাী নেই। আরেক রিকশাচালক ওবায়দুর রহমান বলেন, খালি রিকশা নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন তিনি। যাত্রী পাচ্ছেন না। আয় না হলে ছেলে-মেয়ে নিয়ে উপোস থাকতে হবে। 

হিলি বাজারে কাজের সন্ধানে বসে থাকা কয়েকজন দিনমজুর বলেন, কাজ পাওয়ায় আশায় সকাল থেকে বাজারে বসে আছেন। এত বেলা হলেও কেউ কাজে ডাকছে না। ঠান্ডায় কারণে কেউ বাড়ি থেকে বের হচ্ছে না। কাজ না জুটলে সংসার চলবে কীভাবে তা বুঝতে পারছেন না। 
 

মোসলেম/বকুল 

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়