Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ১৬ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ১ ১৪২৮ ||  ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

পাবনায় হত্যা মামলায় ২ জন গ্রেপ্তার

পাবনা প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:১৯, ১৪ অক্টোবর ২০২১  
পাবনায় হত্যা মামলায় ২ জন গ্রেপ্তার

পাবনার বিল্লাল মিশরী হত্যায় জড়িত মূল অভিযুক্ত নিষিদ্ধ ঘোষিত চরমপন্থি নেতা আবুল হোসেন ওরফে আবুসহ (২৫) ২ আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্র এবং ভিকটিমের চুরি যাওয়া মোটর সাইকেলও উদ্ধার করা হয়। মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) রাতে ঢাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) দুপুরে পাবনার পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

গ্রেপ্তার আবুল ওরফে আবু পাবনা সদর উপজেলার হলুদবাড়িয়া পূর্বপাড়া গ্রামের আমজাদ হোসেনের ছেলে এবং অন্য আসামি সুমন আলী (২০) একই এলাকার আলাউদ্দিন মোল্লার ছেলে। নিহত বিল্লাল মিশরী আতাইকুলা থানার চরপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম বলেন, চলতি বছরের ২৭ জুন সন্ধ্যায় বিল্লাল মিশরী (৩৫) পাবনা শহরের ভাড়া বাসা থেকে মোটরসাইকেলে নিজ বাড়ি আতাইকুলার চরপাড়া গ্রামে যাচ্ছিলেন। রাত সাড়ে আটটার দিকে চরপাড়া গ্রামের শহিদুল্লাহর চায়ের দোকানের সামনে পৌঁছালে দুর্বৃত্তরা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে বিল্লাল মিশরীকে গুলি করে হত্যা করেন। হত্যার পর আসামিরা বিল্লাল মিশরীর মরদেহ ঘটনাস্থল থেকে প্রায় ১ কিলোমিটার দূরে বারোপাকিয়া ব্রিজের পাশে পাট ক্ষেতে ফেলে চলে যান। পরে ২৮ জুন এ ঘটনায় নিহতের পরিবার আতাইকুলা থানায় মামলা করে।  

তিনি আরও বলেন, বিল্লাল মিশরী হত্যার ঘটনায় চরমপন্থি সংশ্লিষ্টতার বিভিন্ন সূত্র ধরে তদন্তে নামে পুলিশ। থানা পুলিশ ও গোয়েন্দা পুলিশের একটি চৌকস দল ঢাকার আশুলিয়া থানা এলাকায় গত মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) রাতে অভিযান চালিয়ে হত্যাকাণ্ডের মূল আসামি চরমপন্থি নেতা আবুল হোসেন ওরফে আবুকে গ্রেপ্তার করে। এ সময় তার স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ২টি ওয়ান শুটারগান ও ২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। আবু হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত রিভলভারটি মামলার অন্য আসামি সুমন আলীর কাছে রেখেছিলেন। পরে সুমন আলীকেও গ্রেপ্তার করা এবং নিহতের মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করা হয়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরও বলেন, বিল্লাল মিশরী এক সময় আবুর সঙ্গে একই চরমপন্থি দলের সদস্য ছিলেন। হত্যাকাণ্ডের কিছুদিন আগে তিনি দল ছেড়ে নতুন দল গঠনের চেষ্টা করছিলেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে আবু তার সহযোগীদের নিয়ে বিল্লালকে পরিকল্পিতভাবে গুলি করে হত্যা করেছেন বলে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকোরোক্তি দিয়েছেন।  

বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) দুপুরে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

শাহীন/সুমি

সর্বশেষ