Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২১ ||  অগ্রহায়ণ ২০ ১৪২৮ ||  ২৭ রবিউস সানি ১৪৪৩

বাগেরহাটে আইজিপির সিল-স্বাক্ষর জাল, প্রতারক গ্রেপ্তার

বাগেরহাট প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:০৫, ২৮ অক্টোবর ২০২১  
বাগেরহাটে আইজিপির সিল-স্বাক্ষর জাল, প্রতারক গ্রেপ্তার

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের প্রফেসর পরিচয় দিয়ে পুলিশ মহা পরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজির আহমেদের সিল-স্বাক্ষর নকল করে কনস্টেবল নিয়োগের সুপারিশের অপরাধে স্বপন সিংহ (৪৫) নামের এক প্রতারককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) ভোরে বরিশাল শহর থেকে বাগেরহাট জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে।

বিকেলে বাগেরহাট পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত প্রেস কনফারেন্সে পুলিশ সুপার কেএম আরিফুল হক এসব তথ্য জানিয়েছেন। 

এসময়, বাগেরহাটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি রেজাউল করিমসহ পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

স্বপন সিংহ পটুয়াখালী জেলার মির্জাগঞ্জ উপজেলার গাবুয়া গ্রামের বিরেন্দ্রনাথ সিংহের ছেলে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বৃহস্পতিবার বিকেলে স্বপন সিংহকে আদালতে সোপর্দ করা হয়।

পুলিশ সুপার কেএম আরিফুল হক বলেন, ‘‘ফকিরহাট উপজেলার সিংগাতী এলাকার প্রান্ত শীল বাপ্পিকে কনস্টেবল পদে নিয়োগ দিতে দশ লাখ টাকা চুক্তি করে প্রতারক স্বপন সিংহসহ চারজন। চাকরি প্রদানের জন্য প্রতারক চক্রটি নিজেদের পুলিশ মহাপরিদর্শকের ঘনিষ্ঠ লোক বলে পরিচয় দেয়। বাপ্পির পরিবারের কাছ থেকে নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর ও একটি ফাঁকা চেক নেয় তারা। পুলিশ সুপার বরাবর কনস্টেবল পদে আবেদন একটি কপির পাশে পুলিশ মহাপরিদর্শকের নকল সিল ও স্বাক্ষর দিয়ে বাপ্পির পরিবারের কাছে দেয়। 

ওই আবেদনটি খুব গোপনে বাগেরহাটের পুলিশ সুপার বরাবর দেওয়ার জন্য বলে। প্রতারকদের পরামর্শ অনুযায়ী বাপ্পির পক্ষ থেকে আবেদনটি আমাদের দপ্তরে জমা দেয়। আমরা আবেদনটি যাচাই বাছাই করে জানতে পারি পুলিশ মহাপরিদর্শকের সীল ও স্বাক্ষর জাল। পরবর্তীতে বাপ্পির মা যুথকা শীলের অভিযোগের ভিত্তিতে স্বপন সিংহকে গ্রেপ্তার করি। এই চক্রে আরও তিনজন জড়িত রয়েছে। তাদেরকে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ সচেষ্ট রয়েছে।’’

পুলিশ সুপার আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক কখনও কনস্টেবল পদে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করেন না। কনস্টেবল নিয়োগ হবে যোগ্যতা ও দক্ষতা অনুযায়ী। কোনো সুপারিশে চাকরির সুযোগ নেই।’

টুটুল/সনি

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়