ঢাকা     বুধবার   ১৭ আগস্ট ২০২২ ||  ভাদ্র ২ ১৪২৯ ||  ১৮ মহরম ১৪৪৪

ক্রীড়া সংস্থা বলছে ‘স্টেডিয়াম’, মেয়র বলছেন ‘গরুর হাট’

মাদারীপুর প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:২৪, ২ জুলাই ২০২২   আপডেট: ২০:০৫, ২ জুলাই ২০২২
ক্রীড়া সংস্থা বলছে ‘স্টেডিয়াম’, মেয়র বলছেন ‘গরুর হাট’

আসন্ন কোরবানির ঈদ সামনে রেখে মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলায় শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে গরুর হাট বসানো হয়েছে। জেলা ক্রীড়া সংস্থা জায়গাটিকে স্টেডিয়াম বললেও পৌর মেয়রের দাবি সেখানে কোনো স্টেডিয়াম নেই। অনেক আগে থেকেই সেখানে গরুর হাট বসছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭ সালে কালকিনি পৌরসভার চর ঠেঙ্গামারা এলাকায় তৎকালীন সংসদ সদস্য আফম বাহাউদ্দিন নাছিম স্টেডিয়ামের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন। পরে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের একটি প্রকল্পের আওতায় ‘শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম’ নির্মাণ করা হয়।

স্থানীয় বাসিন্দা সেলিম মোল্লা বলেন, ‘প্রতিদিন বিকেলে এই মাঠে ছেলেমেয়েরা খেলাধুলা করে। মাঝেমধ্যে বড়রাও খেলার আয়োজন করে। সেই মাঠে গরুর হাট বসায় শিশুরা ঘরবন্দী হয়ে পড়েছে।’

কালকিনি উপজেলা ছাত্রলীগের এক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘পৌরসভার মেয়র ক্ষমতাবলে এখানে গরুর হাট বসিয়েছেন। আমরা চাই হাটটি এখান থেকে সরিয়ে অন্য কোথাও বসানো হোক।’

শনিবার (২ জুলাই) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কালকিনি পৌরসভার চর ঠেঙ্গামারা এলাকায় নির্মিত শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে বাঁশের বেড়া দিয়ে গরুর হাট বসানো হয়েছে। ইতোমধ্যে দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে বিক্রির জন্য হাটে গরু নিয়ে এসেছেন ব্যাপারীরা।

মাদারীপুর জেলা ক্রীড়া অফিসার মো. বকতিয়ার রহমান গাজী বলেন, ‘প্রতিটি উপজেলায় শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম রয়েছে। কালকিনিতেও রয়েছে। তবে স্টেডিয়ামে কেউ হাট বসাতে চাইলে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অনুমতি নিতে হবে।’

কালকিনি শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে গরুর হাট বসানোর অনুমতি যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় থেকে নেওয়া হয়েছে কিনা জানতে চাইলে বকতিয়ার রহমান ‘জানা নেই’ উল্লেখ করে বলেন, ‘উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি ভালো বলতে পারবেন।’

তবে কালকিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি পিংকী সাহা জানান, শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে গরুর হাট বসানোর অনুমতি দেওয়া হয়নি। কালকিনিতে ১৫টি হাটের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। সেই তালিকায় শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামের নামে নেই।

এ বিষয়ে কালকিনি পৌর মেয়র এসএম হানিফ বলেন, ‘পৌরসভা থেকে গরুর হাটের জন্য একটি জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে। দীর্ঘ দিন থেকে এটি গরুর হাট। সেই জমিতে শেখ রাসেল স্টেডিয়ামের নামে কারা যেন ঘর নির্মাণ করেছে। কারা এই ঘর করেছে, আর কার কাছে হস্তান্তর করেছে জানি না। এই গরুর হাটকে স্টেডিয়ামে রূপান্তর করেছে এমন কোনো কাগজপত্রও আমরা পাইনি।’

তিনি আরও বলেন, ‘স্টেডিয়াম হলে তো মেয়র হিসেবে আমি জানবো। আমি জানি না। তৎকালীন সংসদ সদস্য স্থানীয়দের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে স্টেডিয়ামের ঘোষণা দিয়েছিলেন কিন্তু এখনো তা বাস্তবায়ন হয়নি।’

বেলাল/কেআই

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়