ঢাকা     বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ১৬ ১৪২৯ ||  ০৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

ডিসি-ইউএনও`র নামে প্রতারণা, আটক ১

বাগেরহাট প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:৫১, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২  
ডিসি-ইউএনও`র নামে প্রতারণা, আটক ১

আটক প্রতারক ফিরোজ আলী

সরকারিভাবে বিদেশে পাঠানোর কথা বলে বাগেরহাট জেলা প্রশাসক ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নাম ভাঙ্গিয়ে প্রতারনার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে পৌরসভার সোনাতলা এলাকা থেকে মো. ফিরোজ আলী খন্দকার (৪৫) নামের ওই ব্যক্তিকে আটক করা হয়। 

আটককৃত ফিরোজের বাড়ি গোপালগঞ্জ জেলার কোটালিপাড়া উপজেলার নোয়াদা গ্রামে। তিনি নিজেকে বাগেরহাট সদর উপজেলা ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক বলে পরিচয় দিতেন।

সদর উপজেলার মুক্ষাইট এলাকার আলামিন হোসেন জনি নামের এক ভুক্তভোগী বলেন, ‘কিছুদিন আগে ফিরোজের সঙ্গে আমার পরিচয় হয়। তিনি আমাকে সরকারিভাবে বিদেশ যাওয়ার প্রস্তাব দেন। আমি রাজি হলে অনলাইন আবেদন, মেডিকেল টেস্ট ও পুলিশ ক্লিয়ারেন্স বাবদ ১২ হাজার টাকা নেন। পরে তিনি তার দেওয়া একটি অ্যাকাউন্টে ৫০ হাজার টাকা জমা দিতে বলেন। এতে আমার সন্দেহ হয়। তখন আমি বিষয়টি সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানায়। তিনি আমাকে থানায় অভিযোগ দিতে বলেন। আমাদের এলাকার আরো কয়েকজনের সঙ্গেও এমন প্রতারণা করেছেন ফিরোজ।’

বাগেরহাটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মাহামুদ হাসান বলেন, ‘আটক ব্যক্তি বাগেরহাট সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ২০ থেকে ২৫ জন ব্যক্তিকে জেলা প্রশাসক ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে কানাডা, রোমানিয়া, মালয়েশিয়াসহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশে নেওয়ার কথা বলে ডাক্তারি পরীক্ষা করিয়েছেন। এ বাবদ ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেন তিনি। এছাড়া তিনি বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জনের জন্য বাগেরহাট থেকে ২২০ জন সরকারি ব্যবস্থাপনায় বিদেশ যেতে পারবে বলে প্রচার চালাতেন। এজন্য তিনি বিভিন্ন ব্যক্তিকে ৫০ হাজার টাকা জামানত হিসেবে চেক জমা দিতে বলতেন। পরবর্তীতে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক থেকে সাড়ে ৬ লাখ টাকা ঋণ পাইয়ে দেওয়ারও আশ্বাস দিতেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আটককৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে বাগেরহাট সদর থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।’

টুটুল/ মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়