ঢাকা     শুক্রবার   ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ২০ ১৪২৯

বগুড়ায় তুচ্ছ ঘটনায় ইন্টার্ন চিকিৎসককে ছুরিকাঘাত

বগুড়া প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:৪৬, ২৩ নভেম্বর ২০২২   আপডেট: ২২:৫৫, ২৩ নভেম্বর ২০২২
বগুড়ায় তুচ্ছ ঘটনায় ইন্টার্ন চিকিৎসককে ছুরিকাঘাত

ফাইল ফটো

বগুড়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের এক ইন্টার্ন চিকিৎসককে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। বুধবার (২৩ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

ছুরিকাহত ইন্টার্ন চিকিৎসকের নাম ফাহিম রহমান (২৮)। তি‌নি ইন্টার্ন ২৫তম ব্যাচের চিকিৎসক ও ঢাকার সবুজবাগের নুর মোহাম্মাদের ছেলে। এ ঘটনায় পুলিশ তাৎক্ষণিক একজনকে আটক করেছে।

শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) রা‌সেল আহমদ বিষয়টি নিশ্চিত করে ব‌লেন, ‘হাসপাতালের দুই নম্বর গেটের সামনে এ ঘটনা ঘটে।’

স্থানীয়‌ সূত্রে জানা গেছে, ফাহিম সন্ধ্যার পর বন্ধুদের সঙ্গে হাসপাতালের ২ নম্বর গেটে আড্ডা দিচ্ছিলেন। এসময় তারা ফরিদ ব্যাপারীর দোকানে ঝালমুড়ি খেতে যান। একপর্যায়ে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঝালমুড়ি বিক্রেতার সঙ্গে ফাহিমের বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ঝালমুড়ি বিক্রেতার ছেলে শাকিল তার হাতে থাকা পেয়াজ কাঁটার চাকু দিয়ে ফাহিমের পেটে আঘাত করে পালিয়ে যান।

শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ফাহিমের সহপাঠী মোফাজ্জল হোসেন রনি বলেন, ‘তুচ্ছ ঘটনায় ফাহিমকে ছুরিকাহত করা হয়েছে। বর্তমানে তার চিকিৎসা চলছে। দ্রুত জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবি জানাচ্ছি।’

বগুড়া সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রহিম বলেন, ‘এ ঘটনায় ঝালমুড়ি বিক্রেতা ফরিদ ব্যাপারীকে (৫৫) আটক করা হয়েছে। তার ছেলে শাকিল হোসেন (২৫) পলাতক আছেন। তা‌কে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।’

এনাম/কেআই

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়