ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৮ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৪ ১৪৩১

ফরিদপুরে হত্যার দায়ে কিশোরের ৮ বছরের কারাদণ্ড

ফরিদপুর প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৫০, ১৩ মে ২০২৪  
ফরিদপুরে হত্যার দায়ে কিশোরের ৮ বছরের কারাদণ্ড

ফরিদপুরে কিশোর শাহেদ হত্যা মামলার আসামি ইব্রাহীম শেখকে (১৭) ৮ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (১৩ মে) দুপুর সাড়ে ১২টায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের জেলা ও দায়রা জজের বিচারক মো. হাফিজুর রহমান এই রায় দেন। আসামি এসময় আদালতে উপস্থিত ছিল।

ওই কিশোরের কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রের আটক আদেশ বাতিল করে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা মূলে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বিচারক। পরে তাকে পুলিশ প্রহরায় কারাগারে পাঠানো হয়।

আসামি ইব্রাহীম শেখ আলফাডাঙ্গা উপজেলার চরডাঙ্গা গ্রামের আলম শেখের ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, জেলার আলফাডাঙ্গা উপজেলার চরডাঙ্গা গ্রামের জসিম মোল্যার মেয়ের সাথে প্রতিবেশি সৌদি প্রবাসী শেখ সাদিরের ছেলে শাহেদ শেখের সঙ্গে কথা বলাকে কেন্দ্র করে বিরোধ সৃষ্টি হয়। ২০২২ সালের ৩০ জানুয়ারি বেলা ১২টার দিকে নিহত শাহেদ বাড়ীর পাশের মুদির দোকানে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় মেয়েটির পরিবারের লোকজন লোহার রড ও লাঠি-সোটা দিয়ে তার উপর অতর্কিত হামলা করে। এতে শাহেদের মাথা ফেটে গুরুতর আহত হয়। আহত কিশোরকে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে সে মারা যায়।
এই ঘটনায় নিহতের খালু লিটন খান বাদী হয়ে অভিযুক্তদের নামে আলফাডাঙ্গা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।

আলফাডাঙ্গা থানার এসআই মো. ওয়াহিদুজ্জামান ২০২২ সালের ২৮ জুন আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের রাষ্ট্রপক্ষীয় আইনজীবী স্বপন পাল বলেন, দীর্ঘ সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে অভিযুক্ত কিশোরকে দণ্ডবিধির ৩০২/৩৪ ধারায় অপরাধ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাকে ৮ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেয় আদালত।

নিহতের মা শিল্পী বেগম এই রায়ে সন্তুষ্ট না। তিনি উচ্চ আদালতে আপিল করার কথা জানিয়েছেন।

তামিম/ফয়সাল

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়