ঢাকা     শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২ ||  আষাঢ় ১৭ ১৪২৯ ||  ০১ জিলহজ ১৪৪৩

বিজয়ের আনন্দে আবেগাপ্লুত প্রিয়তি (ভিডিও)

বিনোদন ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:১৩, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১   আপডেট: ২২:৪৭, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

যুক্তরাজ‌্যের ‘টপ মডেল ২০২১’ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়েছেন বাংলাদেশের মডেল-অভিনেত্রী মাকসুদা আক্তার প্রিয়তি। শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাতে লন্ডনের দ‌্য রয়েল হর্সগার্ডস হোটেল অ‌্যান্ড ওয়ান হোয়াইটহলে এই প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত আসর অনুষ্ঠিত হয়। 

এই প্রাপ্তিতে দারুণ উচ্ছ্বসিত প্রিয়তি। তিনি বলেন, ‘যুক্তরাজ্যের মাটিতে টপ মডেল প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হওয়া আমার জন্য গর্বের এবং পরম সৌভাগ্যের, বিশেষ করে লন্ডনের মাটিতে। এই প্রথম কোনো এশিয়ান মডেল (নারী) এবং আইরিশ মডেল যুক্তরাজ্য থেকে বিজয়ের এই ট্রফি নিয়ে বাড়ি যাচ্ছে। আমার আনন্দের চিৎকারে আবেগ দেখতে পাবেন।’

রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাইজিংবিডির সঙ্গে আলাপকালে প্রিয়তি বলেন—‘‘ওভার ২৫, এডিটরিয়াল, কমার্শিয়াল, ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ও মেল মডেলস—এই পাঁচ বিভাগ নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় ‘টপ মডেল ২০২১’। বয়স অনুসারে ‘ওভার ২৫’ বিভাগকে দুটি ভাগে ভাগ করা হয়। ২৬-৩৫ বছর বয়সী বিভাগে আমি বিজয়ী হয়েছি। পাঁচ বিভাগের প্রতিযোগিদের নিয়ে আলাদাভাবে গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত হয়েছে।’’ 

চূড়ান্ত আসরে বিজয়ীর নাম ঘোষণার মুহূর্তের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছেন প্রিয়তি। তাতে দেখা যায়, সব নাম ঘোষণার পর কাঙ্ক্ষিত একটি নামের অপেক্ষায় সবাই। সেই মহেন্দ্রক্ষণে ভেসে আসে মাকসুদা নামটি। সঙ্গে সঙ্গে উপস্থিত সকলে চিৎকার করে উঠেন। আনন্দে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন প্রিয়তি।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে নামি নামি মডেলরা এই উৎসবে অংশ নেন। তাদের মধ‌্য থেকে টপ মডেলের অ‌্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয় বলেও জানান প্রিয়তি। এই প্রতিযোগিতায় ফটোগ্রাফিক অ‌্যাওয়ার্ড, পারসোনাল স্টাইল অ‌্যাওয়ার্ড পেয়েছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

রাজধানী ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন প্রিয়তি। শৈশব কেটেছে এই শহরেই। কৈশোরে তিনি পাড়ি জমান আয়ারল্যান্ডে। ইতোমধ্যে বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত প্রিয়তি মিস আয়ারল্যান্ড ২০১৪ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীর মুকুট মাথায় তুলেছেন। শুধু তাই নয়, মিস আর্থ ২০১৬ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হন।

প্রিয়তি নাম লেখিয়েছেন চলচ্চিত্রে। পরিচালক কিয়ারন ডেভিস প্রিয়তিকে নিয়ে প্রথম নির্মাণ করেন ‘ওয়ান্ডারল্যান্ড’ শিরোনামে চলচ্চিত্র। প্রিয়তি অভিনীত দ্বিতীয় আইরিশ চলচ্চিত্র ‘কোকোলান’। এ সিনেমাটিও নির্মাণ করেছেন তিনি। এরপর কিয়ারন প্রিয়তিকে নিয়ে নির্মাণ করেন ‘দ্য মাউন্টেন অব সেরেনিটি’ শিরোনামে চলচ্চিত্র।

ঢাকা/শান্ত

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়