ঢাকা     শনিবার   ২৫ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪৩১

উত্তম কুমার কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতেন না, মহানায়কের জন্য কী ব্যবস্থা ছিল?

বিনোদন ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:২৯, ২৫ এপ্রিল ২০২৪   আপডেট: ১২:৩৬, ২৫ এপ্রিল ২০২৪
উত্তম কুমার কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতেন না, মহানায়কের জন্য কী ব্যবস্থা ছিল?

বিশ্বের সবচেয়ে বড় গণতন্ত্রের দেশ ভারত। গত ১৯ এপ্রিল দেশটির ১৮তম লোকসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। দেশটিতে মোট সাত দফায় ভোটগ্রহণ হবে। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি ভারতীয় শোবিজ অঙ্গনের তারকারাও ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট প্রদান করছেন।

মজার বিষয় হলো, ভারতীয় বাংলা সিনেমার মহানায়ক উত্তম কুমার কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতেন না। বরং বিশেষ উপায়ে ভোট প্রদান করতেন তিনি। উত্তম কুমারের নাতি অভিনেতা গৌরব চ্যাটার্জি এক সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানিয়েছেন।

টিভি নাইনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে গৌরব চ্যাটার্জি বলেন, ‘আমার জন্মের অনেক আগে ঠাকুরদা উত্তমকুমার মারা যান। আমি তাকে নিজের চোখে দেখিনি। কিন্তু তার সম্পর্কে অনেক গল্পই শুনেছি বাবা (গৌতম চ্যাটার্জি) এবং পরিবারের অন্যান্যদের কাছ থেকে। তারাই আমাকে বলেছেন, আমার ঠাকুরদা ভোট দিতে কেন্দ্রে যেতেন না। তিনি বাড়িতেই ভোট দিতেন এবং তার ভোটটা খামে ভরে নিয়ে গিয়ে জমা দেওয়া হতো।’

বিশেষ ব্যবস্থায় ভোট দেওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করে গৌরব চ্যাটার্জি বলেন, ‘আমার ঠাকুরদা তো সশরীরে লোকের সামনে যেতেন না। তাকে সামনে দেখলেই উত্তাল হয়ে উঠতেন মানুষ। প্রচুর ভিড় হতো। বিশৃঙ্খলা রুখতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সরকার। ভোট কেন্দ্রে ক্রাউড (ভিড়) ম্যানেজমেন্টে সমস্যা হতে পারে বলেই আমার ঠাকুরদার বাড়িতে ভোট দেওয়ার ব্যবস্থা করেছিল তৎকালীন সরকার।’

উত্তম কুমার ও গৌরী দেবী দম্পতির একমাত্র সন্তান গৌতম চ্যাটার্জি। ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে মাত্র ৫৩ বছর বয়সে মারা যান তিনি। গৌতম চ্যাটার্জির পুত্র গৌরব চ্যাটার্জি উত্তম কুমারের একমাত্র নাতি। ১৯৬৩ সালে উত্তম কুমার তার পরিবার ছেড়ে চলে যান। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত অর্থাৎ দীর্ঘ ১৭ বছর জনপ্রিয় অভিনেত্রী সুপ্রিয়া দেবীর সঙ্গে বসবাস করেন তিনি

ঢাকা/শান্ত

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়