ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৫ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ১০ ১৪৩১

‘আয়রা সৃজিতকে ডাকে ‘আব্বু’, তাহসানকে ‘বাবা’, দুইয়ের কেন্দ্রে দাঁড়িয়ে আমি’

বিনোদন ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:৩৮, ২৪ জুন ২০২৪   আপডেট: ১১:৫১, ২৪ জুন ২০২৪
‘আয়রা সৃজিতকে ডাকে ‘আব্বু’, তাহসানকে ‘বাবা’, দুইয়ের কেন্দ্রে দাঁড়িয়ে আমি’

বাংলাদেশের জনপ্রিয় তারকা জুটি রাফিয়াথ রশীদ মিথিলা ও তাহসান খান। ভালোবেসে বিয়ে করে সংসারি হয়েছিলেন তারা। ১৪ বছর সংসার করার পরও ভেঙে যায় তাদের বিয়ে। এরপর কলকাতার পরিচালক সৃজিত মুখার্জিকে বিয়ে করেন মিথিলা।

বিবাহবিচ্ছেদ হলেও মিথিলা-তাহসানের মাঝে এখনো যোগাযোগ রয়েছে। প্রতিদিনই কথা হয় তাদের। এর নেপথ্যে রয়েছে এই প্রাক্তন দম্পতির কন্যা আয়রা। এসব বিষয় নিয়ে ভারতীয় একটি গণমাধ্যমে কথা বলেছেন মিথিলা।

এ আলাপচারিতার শুরুতে জানতে চাওয়া হয়, বিবাহবিচ্ছেদের পরও সম্পর্ক রাখা কি স্বাভাবিক? জবাবে মিথিলা বলেন, ‘সব সম্পর্কে বন্ধুত্ব নাও থাকতে পারে। কিন্তু সন্তান থাকলে তার স্বার্থ আগে দেখতে হবে। সন্তানের মানসিক স্বাস্থ্য আমার কাছে সবার আগে। এটাই উচিত।’

‘আমি আয়রাকে দেখতে পেলাম না। আমি আর তাহসান লড়াই করলাম, এই ইগোর যুদ্ধে তো বাচ্চার ক্ষতি হবে। আমি আর তাহসান চৌদ্দ বছর একসঙ্গে থেকেছি। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আমাদের আলাপ। দু’জন দু’জনকে ভালো করে জানি। আয়রা আমাদের দু’জনের কাছে সবার আগে।’ বলেন মিথিলা।

মিথিলার সবকিছু জেনেই তাকে বিয়ে করেছেন সৃজিত। এ তথ্য উল্লেখ করে মিথিলা বলেন, ‘সৃজিত সবটাই জানত। বাংলাদেশে গিয়েছে, আমার পরিবারকে দেখেছে। তাহসানের সঙ্গে আমার সম্পর্ক দেখেছে। বিয়ের মতো সম্পর্ক হওয়ার ক্ষেত্রে অনেকগুলো কারণ থাকে, সৃজিত আমার সবকিছু জেনেই আমাকে গ্রহণ করেছে।’

তাহসান-মিথিলার কন্যা আয়রার সঙ্গে সৃজিতের দারুণ সখ্যতা। তা জানিয়ে মিথিলা বলেন, ‘আয়রার সঙ্গে সৃজিতের চট করে বন্ধুত্ব হয়ে যায়। আয়রা সৃজিতকে ‘আব্বু’ ডাকে আর তাহসানকে ডাকে ‘বাবা’। এই দুইয়ের কেন্দ্রে দাঁড়িয়ে আছি আমি।’

২০০৬ সালের ৩ আগস্ট মডেল-অভিনেত্রী রাফিয়াথ রশিদ মিথিলাকে বিয়ে করেন তাহসান। ২০১৩ সালের ৩০ এপ্রিল এ দম্পতির কোলজুড়ে আসে কন্যাসন্তান আয়রা তাহরিম খান। দর্শকের কাছে জুটি হিসেবে তারা দারুণ পছন্দের ছিলেন তারা। কিন্তু ২০১৭ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে আলাদা হয়ে যান এই দম্পতি। এরপর তাহসান আর বিয়ে করেননি। কিন্তু ২০১৯ সালের ৬ ডিসেম্বর সৃজিতের সঙ্গে ঘর বাঁধেন মিথিলা।

ঢাকা/শান্ত

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়