ঢাকা, শুক্রবার, ২০ চৈত্র ১৪২৬, ০৩ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

এত ফুল, কেনার লোক কম

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০২-২১ ৭:১০:৩২ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০২-২২ ৯:০৭:৩৯ এএম

চাহিদার চেয়ে ফুল বেশি আসায় আর ক্রেতার সংখ‌্যা কমে যাওয়ায় এবার প্রত‌্যাশা অনুযায়ী বিক্রি করতে পারেননি ব্যবসায়ীরা।

ঢাকা ফুল ব্যবসায়ী কল্যাণ বহুমুখী সমিতি লিমিটেড থেকে জানানো হয়েছে, চলতি বছর ঢাকায় একুশে ফেব্রুয়ারিকে সামনে রেখে তারা ২৫ কোটি টাকার ফুল বিক্রির লক্ষ‌্যমাত্রা ঠিক করেছিলেন। তবে ২০ এবং ২১ ফ্রেব্রুয়ারি দুই দিন মিলে ১২ থেকে ১৩ কোটি টাকার ফুল বিক্রি হয়েছে বলে ধারণার কথা জানিয়েছেন সমিতির নেতারা।

ব্যবসায়ীরা দাবি করছেন, অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার ফুলের উৎপাদন অনেক বেশি হয়েছে। তবে সে অনুযায়ী ফুল ক্রেতা বাড়েনি। পাশাপাশি যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের ফলে বাগান থেকে ফুল বিভিন্ন জেলা শহরগুলোতে সরাসরি চলে যাচ্ছে। এতে ঢাকার বাজার ছোট হয়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে বাজারে বিদেশি আর্টিফিশিয়াল ফুল থাকার জন‌্যও কাঁচা ফুলের চাহিদা কিছুটা কমেছে। এসব কারণে এবার বাজারে প্রচুর পরিমাণ কাঁচা ফুল থাকলেও লক্ষ‌্যমাত্রা অনুযায়ী বিক্রি হয়নি। এতে দোকানগুলোত অবিক্রিত ফুল রয়ে গেছে।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর শাহবাগে ফুল মার্কেট ঘুরে দোকানগুলোতে অন‌্যান‌্য বারের চেয়ে অনেক বেশি অবিক্রিত ফুল থাকতে দেখা গেছে।

শেফালী পুষ্পালয়ের মালিক জামাল উদ্দীন বলেন, বৃহস্পতিবার এবং শুক্রবার সকাল পর্যন্ত বিক্রি হয়েছে। এরপর সাধারণত বিক্রি হয়না। কিন্তু এখনো অনেক ফুল রয়ে গেছে। কিছু ফুল শনিবার পর্যন্ত চলবে। এরপরে সব ফেলে দিতে হবে। পরিকল্পনা অনুযায়ী ফুল বিক্রি হয়নি জানিয়ে ফুলতলা পুষ্পালয়ের মালিক মবিন জানান, ‘টার্গেটের অর্ধেকও বিক্রি করতে পারিনি। অনেক ফুল আছে কিন্তু ক্রেতা নেই।’

ঢাকা ফুল ব্যবসায়ী কল্যাণ বহুমুখী সমিতি লিমিটেডের সভাপতি বাবুল প্রসাদ রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘আমাদের যে চাহিদা, তার তুলনায় বেশি উৎপাদন হয়েছে। এর কারণে ফুলের দামও কিছুটা পড়ে গেছে। আর বিক্রিও আশানুরুপ পরিমানে হয়নি।’

আগারগাঁও পাইকারি ব্যবসায়ী সমবায় লিমিটেডের সভাপতি নূর মোহাম্মদ বলেন, কাঁচা ফুলের জায়গায় বাজারে আর্টিফিশিয়াল ফুল জায়গা করে নিচ্ছে। এতে চাষী ও ব্যবসায়ীরা ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন।

 

ঢাকা/নূর/সাজেদ