ঢাকা     সোমবার   ১০ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২৬ ১৪২৭ ||  ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর নামেও ভুতুড়ে বিল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৩৮, ৫ জুলাই ২০২০  
বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর নামেও ভুতুড়ে বিল

বিদ্যুতের ভুতুড়ে বিল নিয়ে দেশবাসীর মধ্যে অসন্তুষ্টি বিরাজ করছে।

এর মধ্যে জানা গেল, খোদ বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদের বাসা ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নামেও এমন ভুতুড়ে বিল এসেছে। এমনকি বন্ধ থাকা প্রতিষ্ঠানেও এসেছে অতিরিক্ত বিদ্যুৎ বিল।

শুধু প্রতিমন্ত্রীই নয়, এমন বিল এসেছে বিদ্যুৎ বিভাগের প্রতিষ্ঠান পাওয়ার সেলের মহা-পরিচালক মোহাম্মদ হোসেন, পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) মইন উদ্দিন, বিদ্যুৎ বিভাগের যুগ্ম সচিব পর্যায়ের চারজন কর্মকর্তাসহ সরকারের শীর্ষ কর্মকর্তাদের বাসাবাড়িতেও।

এ বিষয়ে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, ‘আমাদের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে মার্চ থেকে। বন্ধ থাকা অফিসে বিলে অসঙ্গতি রয়েছে। আমার বাসায়ও একই অবস্থা।’

এদিকে, অতিরিক্ত বিদ্যুৎ বিলের কারণে গত এক মাসে মোট ৬২ হাজার ৯৬টি অভিযোগ এসেছে। ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিলের দায়ে ২৯০ জনকে চিহ্নিত করেছে বিদ্যুৎ বিভাগ। সারা দেশে অতিরিক্ত বিলের অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিদ্যুৎ বিভাগ গঠিত টাস্কফোর্স প্রায় তিনশ’ কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করে। কমিটির সুপারিশের প্রেক্ষিতে ৪ কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্তও করা হয়। এছাড়া আরও ৩৬ প্রকৌশলীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ (শোকজ) দেওয়া হয়েছে। আগামী ১০ দিনের মধ্যে তাদের কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।

অভিযোগ তদন্তে কোম্পানির নির্বাহী পরিচালককে (আইসিটি) প্রধান করে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। এখন থেকে রিডিং দেখে বিল করা হবে।

 

ঢাকা/হাসান/বুলাকী

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়