RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||  ফাল্গুন ১৩ ১৪২৭ ||  ১৩ রজব ১৪৪২

এক ওমরাহ এজেন্সির কার্যক্রম স্থগিত, আরেকটির বিরুদ্ধে নোটিশ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:৫৩, ১৯ জানুয়ারি ২০২১  
এক ওমরাহ এজেন্সির কার্যক্রম স্থগিত, আরেকটির বিরুদ্ধে নোটিশ

ট্রাভেল সনদ নবায়ন না করায় একটি ওমরাহ এজেন্সির সব কার্যক্রম স্থগিত করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। ২০১৯ সালে হজযাত্রীদের সঙ্গে প্রতারণা ও অনিয়মের অভিযোগে আরেকটি হজ এজেন্সির বিরুদ্ধে চূড়ান্ত কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। তিন দিনের মধ্যে নোটিশের জবাব না দিলে ওই এজেন্সির বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কার্যক্রম স্থগিত করা ওমরাহ এজেন্সি হলো রাজধানীর মতিঝিলের আহমেদ এয়ার ওয়েজ সার্ভিসেস (ওমরাহ লাইসেন্স নম্বর ৪৯৮)। কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে রাজধানীর কার্লভার্ট রোডে অবস্থিত সিয়াম ট্রাভেলস অ‌্যান্ড ট্যুরসকে (এইচএল ১১৯৬)।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) ধর্ম মন্ত্রণালয়ের হজ অনুবিভাগের সিনিয়র সহকারী সচিব আবুল কাশেম মুহাম্মদ শাহীন স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে আহমেদ এয়ার ওয়েজ সার্ভিসেসের ওমরাহ লাইসেন্স কার্যক্রম স্থগিত করা হয়। এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠানটির মালিক সাঈদ আহমেদকে চিঠি দিয়ে জানানো হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘আহমেদ এয়ার ওয়েজ সার্ভিসেস (ওমরাহ লাইসেন্স নম্বর ৪৯৮) এর ট্রাভেল সনদ নির্দিষ্ট সময়ে বর্ণিত এজেন্সি কর্তৃক নবায়ন না করায় বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় কর্তৃক উক্ত সনদ বাতিল করা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় হতে ট্রাভেল সনদ না পাওয়া পর্যন্ত উক্ত এজেন্সির ওমরাহ লাইসেন্স কার্যক্রম আপাতত স্থগিত রাখা প্রয়োজন। এমতাবস্থায় বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় হতে ট্রাভেল সনদ না পাওয়া পর্যন্ত আহমেদ এয়ার ওয়েজ সার্ভিসেসের ওমরাহ লাইসেন্সের কার্যক্রম নির্দেশক্রমে স্থগিত রাখা হলো।’

অন্যদিকে, সোমবার ধর্ম মন্ত্রণালয়ের হজ অনুবিভাগের সিনিয়র সহকারী সচিব আবুল কাশেম মুহাম্মদ শাহীন স্বাক্ষরিত এক আদেশে সিয়াম ট্রাভেলস অ‌্যান্ড ট্যুরসের বিরুদ্ধে ২০১৯ সালে হজ চলাকালে সৌদি আরবে হজযাত্রীর সঙ্গে প্রতারণাসহ নানা অনিয়মের অভিযোগে গঠিত মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটির আগের কারণ দর্শানো নোটিশের জবাব না দেওয়া এবং প্রতারণা-অনিয়মের বিষয়ে জাতীয় হজ ও ওমরাহ নীতি ২০১৯ এর ২৪ ধারার ২ অনুযায়ী কেন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, তা তিন দিনের মধ্যে জানাতে বলা হয়েছে।
প্রতিষ্ঠানটির মালিক সানাউল্লাহ ভূইয়াকে উদ্দেশ্য করে আদেশে বলা হয়েছে, ‘আপনি ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অনুমোদিত বেসরকারি হজ পরিচালনাকারী হিসেবে সিয়াম ট্রাভেলস অ‌্যান্ড ট্যুরসের মালিক কিংবা মোনাজ্জেম হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। আপনি বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রী প্রেরণ বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের কাছে জাতীয় হজ ও ওমরাহ নীতি ২০১৯ বর্ণিত শর্তাদি পালনে অঙ্গিকারাবদ্ধ ছিলেন। আপনার এজেন্সির বিরুদ্ধে হজযাত্রী এটিএম জালাল উদ্দিনসহ চারজন কাউন্সিলর (হজ) মক্কাস্থ বাংলাদেশ হজ অফিসে নিম্নমানের হোটেলে রাখা, নিম্নমানের খাবার দেওয়াসহ নানা অভিযোগ করেছেন। আপনার এজেন্সির বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগ বাংলাদেশে গঠিত তদন্ত কমিটি তদন্ত করেছে এবং তদন্ত কমিটি শাস্তির সুপারিশ করেছে। আপনি গত ২৩ মার্চ ২০২০ এর কারণ দর্শানো নোটিশের কোনো জবাব দেননি। এসব কারণে আপনার এজেন্সির বিরুদ্ধে জাতীয় হজ ও ওমরাহ নীতি ২০১৯ এর ২৪ এর ১ ধারায় বর্ণিত শাস্তির কারণসমূহ বিদ্যমান রয়েছে। সেহেতু আপনার পরিচালিত সিয়াম ট্রাভেলস অ‌্যান্ড ট্যুরসের বিরুদ্ধে জাতীয় হজ ও ওমরাহ নীতি ২০১৯ এর ২৪.২ ধারা অনুযায়ী কেন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, তার জবাব আগামী তিন দিনের মধ্যে মন্ত্রণালয়ে দাখিল করার জন্য নির্দেশক্রমে পুনরায় অনুরোধ করা হলো।’

ঢাকা/নঈমুদ্দীন/রফিক

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়