ঢাকা     রোববার   ১৪ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ১ ১৪৩১

হঠাৎ ব্লাড প্রেসার কমে গেলে করণীয়

দেহঘড়ি ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:১৪, ২৫ জানুয়ারি ২০২৪   আপডেট: ১২:১৫, ২৫ জানুয়ারি ২০২৪
হঠাৎ ব্লাড প্রেসার কমে গেলে করণীয়

রক্তচাপ বা ব্লাড প্রেসার কমে গেলে শরীরে নানারকম নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। অনেকের ধারণা উচ্চ রক্তচাপের থেকে নিম্ন রক্তচাপ কম ভয়ের। কিন্তু তা একেবারেই নয়। চিকিৎসকদের মতে, লো ব্লাড প্রেশার বা হঠাৎ প্রেশার কমে যাওয়াতেও বিপদ আছে। লো ব্লাড প্রেশারের ফলে হৃৎপিণ্ডে, মস্তিষ্কে ও শরীরের অন্যান্য অংশে রক্ত সঞ্চালনের পরিমাণ কমে যায়। এর ফলে মাথা ঘোরা, দুর্বলতা এমনকি বমি বমি ভাব বেড়ে যায়।

কেন কমে যায় প্রেশার: শুয়ে বা বসে থাকা অবস্থা থেকে হঠাৎ জেগে উঠলে রক্তচাপে ব্যাঘাত ঘটে। এর ফলে স্ট্রোকের আশঙ্কা বেড়ে যায়। ব্লাড প্রেশার হঠাৎ কমে যাওয়ার ফলে শরীর ভারী লাগতে পারে। এই অবস্থা থেকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরা জরুরি। জেনে নিন হঠাৎ ব্লাড প্রেশার কমে গেলে কী করতে হবে।
স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, হঠাৎ ব্লাড প্রেশার কমে গেলে চা অথবা কফি পান করলে ভালো ফল পাওয়া যায়। কারণ, কফিতে থাকে ক্যাফিন। এই উপাদান সাময়িকভাবে ব্লাড প্রেশার বাড়াতে সাহায্য করে।

বেশি করে পানি পান করুন: হঠাৎ প্রেসার কমে গেলে পানি পান করা উচিত। লো ব্লাড প্রেশারের রোগীদের ক্ষেত্রে ডায়েটে অবশ্যই পানীয় রাখতে হবে। বিভিন্ন রকম পানীয়র মধ্যে রাখতে পারেন নারকেলের পানি, পুষ্টিকর ফলের রস, স্যুপ জাতীয় খাবার।  

তুলসী পাতা খেতে পারেন: লো ব্লাড প্রেশারের রোগীরা সকালে উঠে পাঁচটি তুলসী পাতা খেতে পারেন। এতে থাকা উচ্চমাত্রায় পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম ও ভিটামিন সি ব্লাড প্রেশার নিয়ন্ত্রিত রাখে। তুলসী পাতা কোলস্টেরলের মাত্রাও কমাতে সাহায্য করে।

সাময়িক সুস্থতার জন্য শুধু নয়- প্রতিদিন ভালো থাকার জন্য লো ব্লাড প্রেশারের রোগীদের জন্য সময়মতো খাওয়াদাওয়া করা অত্যন্ত জরুরি। ভারী খাবারের মাঝে স্বাস্থ্যকর মুখরোচক খাবার খেতে হবে। বিশেষজ্ঞদের মতে, দিনে ৩ বার ভারী খাবার খাওয়ার থেকে পাঁচবার অল্প অল্প করে খেলে বেশি উপকার পাবেন। এর ফলে ব্লাড প্রেশার হঠাৎ কমে যাওয়া আটকানো সম্ভব হবে।

তথ্যসূত্র: জি নিউজ

/লিপি

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়