ঢাকা     বুধবার   ০৭ ডিসেম্বর ২০২২ ||  অগ্রহায়ণ ২৩ ১৪২৯ ||  ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪১৪

‘মুশফিক, অবসরের ঘোষণায় হৃদয় ভেঙে গেছে’

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:৫০, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২২   আপডেট: ১৪:৫২, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২২
‘মুশফিক, অবসরের ঘোষণায় হৃদয় ভেঙে গেছে’

দীর্ঘদিন ধরে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ফর্মের বাইরে মুশফিকুর রহিম। এশিয়া কাপে দলের সঙ্গে তারও সময় ভালো কাটেনি। আফগানিস্তান ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে করেন ১ ও ৪ রান। লঙ্কান ম্যাচে তো ক্যাচ মিস, ক্যাচ নিয়েও রিভিউ না নিতে পারার ব্যর্থতা তো ছিলই। শেষ পর্যন্ত এই ফরম্যাটের জাতীয় দলের জার্সি চিরতরে তুলে রাখার সিদ্ধান্ত নিলেন মুশফিক।

৩৫ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান রোববার বেলা গড়াতেই ফেসবুক পেইজে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি থেকে অবসরের ঘোষণা দেন। দলের নির্ভরযোগ্য এই ব্যাটসম্যানের এমন সিদ্ধান্তে হতবাক তার সতীর্থরা। তবে এই বিদায় মেনে নিয়েছেন, জানিয়েছেন পরবর্তী অধ্যায়ের জন্য শুভ কামনা।  

মুশফিকের সঙ্গে মাঠ থেকে বেরিয়ে আসার একটি ছবি পোস্ট করে সাবেক অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর ফেসবুক পোস্ট, ‘প্রিয় মুশফিক, তোমার ঘোষণা শুনে আমার হৃদয় ভেঙে গেছে। কিন্তু তোমার টি-টোয়েন্টিতে অর্জন ও ক্যারিয়ারের জন্য সাধুবাদ জানাই। তোমার সঙ্গে টি-টোয়েন্টিতে খেলতে পারা ছিল আনন্দদায়ক। তোমার কাজে নীতি যে কোনও ফরম্যাটে সবসময় অনুপ্রেরণাদায়ক হয়ে থাকবে।’

উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহান লিখেছেন, ‘মাঠের ভেতর ও বাইরে আপনি সবসময় আমাদের অনুপ্রেরণা। শুভ টি-টোয়েন্টি অবসর মুশফিকুর রহিম ভাই। অনাগত দিনগুলোর জন্য শুভ কামনা।’

তরুণ ব্যাটসম্যান আফিফ হোসেন ধ্রুব লিখেছেন, ‘আশা করি আপনার ভবিষ্যৎ যাত্রা আরও বেশি সফল হবে মুশফিকুর রহিম ভাই।’ পেসার তাসকিন আহমেদ বলেছেন, ‘ধন্যবাদ, টি-টোয়েন্টির লিজেন্ড মুশফিকুর রহিম।’

জাতীয় দলে উপেক্ষিত ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার লিখেছেন, ‘মুশফিক ভাই আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিকে বিদায় বলেছেন।’ মুশফিকের সঙ্গে ২২ গজের একটি ছবি দিয়ে ব্যাটসম্যান ইয়াসির আলী রাব্বি লিখেছেন, ‘মুশফিক ভাই টি-টোয়েন্টি থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন। একটি টি-টোয়েন্টি যুগের শেষ।’

এর আগে তামিম ইকবাল আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি থেকে অবসর নেন। এবার মুশফিকও। সত্যিই একটি অধ্যায়ের শেষ হতে চলেছে।

বাংলাদেশের হয়ে এ ফরম্যাটে মুশফিকের বেশ কয়েকটি ভালো ইনিংস রয়েছে। ২০১৯ সালে তার অপরাজিত ৬০ রানের ইনিংসে ভর করে দিল্লিতে ভারতকে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। ২০১৮ সালে নিদাহাস ট্রফিতে তার ৩৫ বলে ৭২ রানের ইনিংসে ভর করেই বাংলাদেশ ২১৪ রান তাড়া করে জিতেছিল। তারও আগে ২০১১ সালে ঢাকায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শেষ ওভারে ছক্কা মেরে দলকে জিতিয়েছিলেন। সব মিলিয়ে এই ফরম্যাটে বাংলাদেশের চারটি জয়ের নায়ক মুশফিক।  

ঢাকা/ফাহিম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়