ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৬ এপ্রিল ২০২৪ ||  বৈশাখ ৩ ১৪৩১

শচীনের দেখা পেলেন হাত ছাড়া ক্রিকেট খেলা সেই কাশ্মীরি তরুণ

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:৩৩, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   আপডেট: ১৮:৩৯, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
শচীনের দেখা পেলেন হাত ছাড়া ক্রিকেট খেলা সেই কাশ্মীরি তরুণ

কয়েক মাস আগে একটা ভিডিওতে দেখা যাচ্ছিলো, হাত ছাড়াই ক্রিকেট খেলছেন কাশ্মীরের এক তরুণ। ভারতীয় বার্তা সংস্থা ‘এএনআই’-এর সেই ভিডিও শেয়ার করে বিস্ময় প্রকাশ করেছিলেন ভারতীয় কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার। এবার কাশ্মীর ভ্রমণে গিয়ে আমির হোসেন লোন নামের সেই তরুণের সঙ্গে দেখা করে তাকে চমকে দিয়েছেন ভারতীয় মহাতারকা।

পুরো পরিবার সহ কাশ্মির সফরে গিয়ে একের পর এক ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করছেন শচীন। তাতে পেহেলগামের তুষারপাত উপভোগ থেকে শুরু করে কাশ্মীরের রাস্তায় স্থানীয় ছেলেদের সঙ্গে ক্রিকেটও খেলেছেন। গিয়েছিলেন ব্যাট কারখানায়ও। সবশেষ চমকটা দিলেন কাশ্মীর প্যারা ক্রিকেট দলের অধিনায়ক আমিরের বাড়িতে গিয়ে দেখা করে।

ভারতীয় গণমাধ্যম ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’র বরাতে জানা যায়, ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের ওয়াঘামা গ্রামে জন্ম আমিরের। বাবার কারখানায় ৮ বছর বয়সে এক দুর্ঘটনায় দুই হাত হারিয়েছিলেন। কিন্তু ক্রিকেটের প্রতি ভালোবাসা থেকেই নিজের শারীরিক সীমাবদ্ধতার মধ্যেও খেলার উপায় বের করে নিয়েছেন আমির।

২০১৩ সালে শুরু হয় আমিরের পেশাদার ক্রিকেটে যাত্রা। সে বছরই ২০১৩ সালে দিল্লিতে জাতীয় পর্যায়ে খেলেছেন তিনি। ২০১৮ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষেও আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন। এরপর নেপাল, শারজা ও দুবাই সফরেও গেছেন বিস্ময় জাগানো এই ক্রিকেটার। আমিরের হাত ছাড়া ব্যাটিং দেখে অবাক হন অনেকেই। 

এক সাক্ষাৎকারে আমির জানিয়েছিলেন, শচীন ও বিরাট কোহলি তার প্রিয় ক্রিকেটার। যেটা শুনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ‘এক্স’-এ শচীন লিখেছিলেন, ‘অসম্ভবকে সম্ভব করেছে আমির। যা আমাকে আবেগতাড়িত করেছে। এটা খেলার প্রতি তার ভালোবাসা এবং আত্মত্যাগের বহিঃপ্রকাশ। আশা করি, একদিন তার সঙ্গে দেখা করে তার নাম লেখা একটি জার্সি নেওয়ার সুযোগ হবে।’

কাশ্মির গিয়ে সেই সুযোগটি আর হাতছাড়া করলেন না শচীন। সুযোগ পেয়ে দেখা করে আসলেন এ ‘বিস্ময় ক্রিকেটার’-এর সঙ্গে। শচীনের শেয়ার করা ভিডিওতে দেখা যায়, পা দিয়ে বোলিং ও কাঁধ দিয়ে ব্যাটিং করেন আমির। শচীনকে নিজের প্রতিভা দেখান তিনি। শচীনও চেষ্টা করে কিছু শিখে রাখতে।

ঢাকা/বিজয়

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়