ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৪ মে ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

পরিচালক আমার ছবি ডাস্টবিনে ফেলে দিয়েছিল : মনোজ

আমিনুল ইসলাম শান্ত : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৪-২৪ ৮:১৮:১৯ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৪-২৪ ১২:২২:৩১ পিএম
Walton AC

বিনোদন ডেস্ক: ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেতা মনোজ যোশী। চরিত্রাভিনেতা হিসেবে তার খ্যাতি রয়েছে। বহুবার প্রমাণ দিয়েছেন অভিনয় ক্ষমতার। দুই দশকের অভিনয় ক্যারিয়ারে স্বীকৃতিস্বরূপ গত বছর পেয়েছেন পদ্মশ্রী পদক। কিন্তু অভিনয় ক্যারিয়ারের শুরুর দিকটা খুব বেশি মসৃণ ছিল না। নানা প্রতিকূল পরিবেশের মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে তাকে।

সম্প্রতি ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে এসব বিষয়ে কথা বলেছেন মনোজ যোশী। স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, ‘আমার প্রকৃত সংগ্রামটা শুরু হয় ১৯৯০ সালে। যখন থিয়েটার থেকে ফিল্মে পা রাখি। অল্প বয়স থেকেই আমি চরিত্রাভিনেতা ছিলাম যার কারণে চ্যালেঞ্জটা বেশি ছিল। তাছাড়া আমি তারকা সন্তান ছিলাম না যে, সহজেই সিনেমায় কাজের সুযোগ পেয়ে যাব।’

তিক্ত অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমার কিছু ছবিসহ একটি স্টুডিওতে গিয়েছিলাম। তারা আমার ছবি দেখে এক পাশে রেখে দেয়। তারা যেভাবে আমার কাছ থেকে ছবি নিয়েছিল তাতে মনে হয়নি দ্রুত আমাকে কাজ দেবে। এক সময় পরিচালক আমার সামনেই আমার ছবি ডাস্টবিনে ফেলে দিয়েছিল।’

‘এরপর সিদ্ধান্ত নিই সিনেমায় অভিনয়ের জন্য আর কখনো পোর্টফোলিও শুট করবো না। এই ঘটনাটি আমাকে গভীরভাবে ভাবিয়ে তুলেছিল এবং একজন শিল্পীর জন্য এটা অপমানজনক ছিল। তাছাড়া এক কপি ছবির জন্য খরচ হতো ৮ রুপি, ১০ কপির জন্য খরচ হতো ৮০-১০০ রুপি। যা আমার জন্য অনেক ব্যয়বহুল ছিল। এজন্য পরবর্তীতে ছবি ছাড়া অডিশন দিতে যেতাম। এ সময় বলতাম— আপনাদের সামনের ব্যক্তিটি আমি, এই আমার অভিনয়।’ বলেন মনোজ যোশী।

থিয়েটারের মাধ্যমে অভিনয়ে হাতখড়ি মনোজ যোশীর। এরপর কাজ করেন বিভিন্ন টেলিভিশন সিরিজে। বলিউডে ‘সরফরাজ’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে তার। এতে পুলিশ ইন্সপেক্টরের চরিত্রে অভিনয় করেন। এটি মুক্তি পায় ১৯৯৮ সালে। এরপর ‘দেবদাস’, ‘হাঙ্গামা’, ‘জানেমন জানেমন’, ‘ধুম’ ‘প্রেম রতন ধন পায়ো’ সহ অনেক দর্শকপ্রিয় সিনেমায় অভিনয় করেন তিনি।

ভারতের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বায়োপিক— ‘পিএম নরেন্দ্র মোদি’। এতে ভারতের রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব অমিত শাহর চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। এটি পরিচালনা করেছেন ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বিজয়ী পরিচালক উমাং কুমার। সিনেমাটি মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৪ এপ্রিল ২০১৯/শান্ত/ফিরোজ

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge