Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||  আশ্বিন ৬ ১৪২৮ ||  ১২ সফর ১৪৪৩

নারী ইউপি সদস্যকে মারপিট, চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:৫৩, ১ আগস্ট ২০২১   আপডেট: ১৮:০৪, ১ আগস্ট ২০২১
নারী ইউপি সদস্যকে মারপিট, চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

খুলনায় সংরক্ষিত মহিলা সদস্যকে মারপিট করার অভিযোগে তেরখাদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় বারাসাত ইউপি চেয়ারম্যান কেএম আলমগীর হোসেনসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রোববার (১ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে খুলনা সদর থানা পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তার অপর দুজন হলেন— তেরখাদা উপজেলা যুবদল নেতা মিল্টন মুন্সি (৪৫) ও স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক সোহাগ মুন্সি (৩৪)।

এর আগে গত ২৮ জুলাই বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন একই ইউনিয়নের ৪, ৫, ৬ নম্বর সংরক্ষিত ওয়ার্ডের মহিলা সদস্য রিনা বেগম।

খুলনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসান আল-মামুন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, গত ২৮ জুলাই সকাল সাড়ে ১০টায় খুলনা থানাধীন জেলখানাঘাটের টোল প্লাজার সামনে রিনা বেগমকে মারধর করেন গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা। এছাড়া তারা ওই নারী মেম্বারের কাছে থাকা ১৫,২০০ টাকা লুট করে নেয়।
ওসি হাসান আল-মামুন জানান, ইউপি চেয়ারম্যান কেএম আলমগীর হোসেনসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে প্রধানমন্ত্রীকে হেয় করে বক্তব্য প্রদানের অভিযোগে গত ২৬ জুলাই খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির এক জরুরি সভায় তেরখাদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান এফ এম অহিদুজ্জামান অহিদকে দল থেকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছিল।

খুলনা/নূরুজ্জামান/এমএম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়