Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||  আশ্বিন ২ ১৪২৮ ||  ০৮ সফর ১৪৪৩

মমেক হাসপাতালে বাড়ছে ডেঙ্গু রোগী

মাহমুদুল হাসান মিলন, ময়মনসিংহ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:২৯, ২ আগস্ট ২০২১  
মমেক হাসপাতালে বাড়ছে ডেঙ্গু রোগী

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে হঠাৎ করেই বেড়েছে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। গত ৪ জুলাই হাসপাতালে প্রথম ডেঙ্গুরোগী ভর্তি হয়। দুইদিন চিকিৎসা শেষে তাকে ছুটি দেওয়া হয়। এরপর থেকে এখন পর্যন্ত হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছে ১০ জন। তাদের মধ্যে গত এক সপ্তাহে ভর্তি হয়েছে ০৬ জন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডেঙ্গু ইউনিটের ফোকাল পারসন ডা. হরিমোহন পন্ডিত নিউটন। তিনি বলেন, গেল ৭ দিনে হাসপাতালে ৬ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে দুইজন ভালো হয়ে বাড়ি চলে গেছে। চারজন চিকিৎসাধীন রয়েছে। দু’-একদিনের মধ্যে রোগী আরও বাড়লে ডেঙ্গুরোগীদের জন্য আলাদা ওয়ার্ডের চিন্তা ভাবনা করা হবে।

তিনি আরো বলেন, ভর্তিকৃতরা ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১৩, ১৪ এবং ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তারা মোটামুটি ঝুঁকিমুক্ত। তবে তৃতীয় দফায় কেউ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হলে থাকে বাঁচানো কঠিন হয়ে পড়ে। তাই ডেঙ্গু প্রতিরোধে সকলকে সচেতন হবে। এই ছয়জন রোগীর হিস্ট্রি থেকে জানা যায় চারজন ঢাকায় থাকতেন এবং সেখান থেকে আক্রান্ত হয়েছেন। বাকি দুইজন ময়মনসিংহে।

ভালুকা উপজেলার খায়রুল বাশার (৪২)। জনতা ব্যাংকের হেড অফিসের প্রিন্সিপাল অফিসার। থাকতেন মিরপুরে। সেখান থেকে গত ২৮ জুলাই শরীরে থেমে থেমে জ্বর আসলে পরীক্ষার মাধ্যমে ডেঙ্গু ধরা পড়ে। পরে ৩০ জুলাই ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। রক্তের প্লাটিলেট কমে যাওয়ায় রোববার (১ আগস্ট) রাতে তার শরীরে রক্ত দেওয়া হয়।

জামালপুর সদর উপজেলার হানিফ উদ্দিন (২৮) ঢাকার মিরপুরে একটি সুপারশপে চাকরি করেন। বাড়িতে আসার পর শুক্রবার (৩০ জুলাই) তার শরীরে জ্বর আসলে শনিবার (১ আগস্ট) পরীক্ষা করে ডেঙ্গু পজেটিভ আসে। ভর্তি রয়েছেন হাসপাতালের ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে। 

ময়মনসিংহ সদর উপজেলার পরানগঞ্জ ইউনিয়নের বাসিন্দা আব্দুল ওয়াহাব শনিবার (৩১ জুলাই) জ্বর নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলে রোববার (১ আগস্ট) তার ডেঙ্গু পজেটিভ আসে। এখন তিনিও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের এক শিক্ষার্থী ডেঙ্গু পজেটিভ হওয়ার পর হাসপাতালে দুইদিন চিকিৎসা শেষে আজকে ছুটি নিয়ে বাসায় গেছেন। তিনি কলেজের হলে থাকতেন।

ময়মনসিংহে ডেঙ্গু রোগী বাড়ায় উদ্বেগ জানিয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন নাগরিক সমাজের নেতারা। সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) ময়মনসিংহ মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক আলী ইউসুফ বলেন, করোনার পাশাপাশি ময়মনসিংহে ডেঙ্গুও ইঙ্গিত দিচ্ছে ভয়াবহতার। বিষয়টি উদ্বেগের। যেহেতু জেলায় ডেঙ্গু রোগী পাওয়া গেছে। সময় থাকতে স্বাস্থ্য বিভাগ ও জনপ্রতিনিধিদের সোচ্চার হতে হবে।

জেলা সিভিল সার্জন মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম বলেন, ডেঙ্গু নিয়ে সচেতনতামূলক প্রচার কার্যক্রম চালানো হচ্ছে। মানুষকে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে দিনে এবং রাতে মশারি টানিয়ে ঘুমানোর জন্য। যারা ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হবেন, তারা যেন কোনোভাবেই মশারির ভেতর থেকে না বের হোন।

সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. ইকরামূল হক টিটু বলেন, ডেঙ্গুর বিষয়টি মাথায় রেখে সিটি করপোরেশন এলাকায় জোরদার কার্যক্রম চালানো হচ্ছে। মানুষকে সচেতনতার পাশাপাশি জরিমানাও করা হচ্ছে। করোনা ও ডেঙ্গু থেকে বাঁচতে হলে সকলকেই আসলে সচেতন হতে হবে।

/বকুল/

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়