Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৯ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ৩ ১৪২৮ ||  ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

যুবলীগের বর্ধিত সভাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ আহত ২০

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৪৪, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১  
যুবলীগের বর্ধিত সভাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ আহত ২০

লক্ষ্মীপুরে জেলা যুবলীগের বর্ধিত সভাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে জেলা যুবলীগ সভাপতি সালাহ উদ্দিন টিপুসহ উভয় পক্ষের অন্তত ২০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

আহতদের লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে মেঘনা রোডস্থ ইয়াছিন সর্দার জামে মসদি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।  শহরের সোনার বাংলা চাইনিজ রেস্টুরেন্টে বর্ধিত সভার আয়োজন করে যুবলীগ। দুপুর ২টার দিকে বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়।

দলীয় সূত্র ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জেলা যুবলীগের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির বর্ধিত সভাকে ঘিরে পদ প্রত্যাশী যুবলীগ ও ছাত্রলীগের সাবেক অন্তত ১০ জন নেতা প্রার্থিতা ঘোষণা করেন। তারা শহরে বিলবোর্ড, প্লাকার্ড, ব্যানার, ফেস্টুন দিয়ে সভায় অংশ নিতে আসা দলটির কেন্দ্রীয় নেতাদের শুভেচ্ছা জানান। 

সভা উপলক্ষে কেন্দ্রীয় নেতাদের বরণ করতে মঙ্গলবার দুপুরে পদ প্রত্যাশীরা নিজ নিজ কর্মী সমর্থকদের নিয়ে রামগঞ্জ-লক্ষ্মীপুর সড়কসহ শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান নেন।  জেলা যুবলীগ সভাপতি টিপু ও সাধারণ সম্পাদক নোমান কর্মী সমর্থকদের নিয়ে রামগঞ্জ-লক্ষ্মীপুর সড়ক দিয়ে যাচ্ছিলেন। যুবলীগের পদ প্রত্যাশী রুপম ও বাবর সমর্থকরাও এ সময় সেখানে অবস্থান করছিলেন। পরে টিপু ও নোমানের কর্মীদের সঙ্গে রুপম ও বাবরের কর্মীদের মেঘনা রোডস্থ বাগবাড়ী জেলে পল্লী এলাকায় সংঘর্ষ হয়।  

সংঘর্ষে জেলা যুবলীগ সভাপতি সালাহ উদ্দিন টিপু, পদ প্রত্যাশী নুরুল আজিম বাবর, রুপমসহ উভয় পক্ষের ২০ নেতাকর্মী আহত হন। পরে তাদের লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত বাবর অভিযোগ করে বলেন, টিপু ও নোমানের কর্মীরা তার সমর্থকদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। হামলায় তিনিসহ তার ১৫ সমর্থককে মারধর করা হয়।  

টিপু অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, দলীয় সমর্থকদের ভেতরে বিএনপি জামায়াত ঢুকে বিশৃঙ্খলাতা করতে শুরু করে। আমরা সিনিয়ররা তা চিহ্নিত করতে গেলে তিনিসহ কয়েকজন আহত হয়েছেন। দলের ভেতরে কোনো গ্রুপিং নেই বলেও দাবি করেন তিনি।

লক্ষ্মীপুর সদর থানার ওসি (তদন্ত) শিপন বড়ুয়া জানান, অনেক লোক সমাগমে কিছু বিশৃঙ্খলা (হাতাহাতি) হয়েছে। তবে সেখানে কোনো সংঘর্ষ হয়নি।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ২৩ নভেম্বর টিপুকে সভাপতি ও আবদুল্লাহ আল নোমানকে সাধারণ সম্পাদক করে তিন বছরের জন্য লক্ষ্মীপুর জেলা যুবলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয়।

লিটন/মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়